পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

পানপার্টি বিধিবিরুদ্ধ বলে কেউ সতর্ক করেনি, দাবি জনসনের

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-18 22:47:04 BdST

bdnews24

১০ নং ডাউনিং স্ট্রিটের বাগানে মদপানের পার্টি আয়োজনে লকডাউনের বিধিভঙ্গের ঝুঁকি আছে সে ব্যাপারে কেউ সতর্ক করেনি বলে স্পষ্টতই ‍দাবি করেছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ২০২০ সালের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে কঠোর লকডাউন চলার সময় ডাউনিং স্ট্রিটের বাগানে মদপানের পার্টিতে প্রধানমন্ত্রী জনসনের উপস্থিত থাকা নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে যুক্তরাজ্যের রাজনীতিতে উত্তেজনা চলছে। ওই ঘটনা নিয়ে শোরগোল শুরু হলে প্রকাশ্যে ক্ষমা চান জনসন।

ওদিকে গত শুক্রবার ‘দ্য টেলিগ্রাফ’ প্রধানমন্ত্রীর নতুন কেলেঙ্কারি প্রকাশ করে। তারা জানা  গতবছর ১৬ এপ্রিল রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ তার স্বামী প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান থাকার সময়ও জনসনের ডাউনিং স্ট্রিটের কার্যালয়ে কর্মীরা আরও দুটো মদের পার্টির আয়োজন করেছিল।

অথচ, ওই সময়ও বদ্ধ জায়গায় জনসমাগমের ওপর নিষেধাজ্ঞা ছিল। প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে তখন চলছিল জাতীয় শোক এবং পরেদিন (১৭ এপ্রিল) ছিল ফিলিপের শেষকৃত্য।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন সেই পার্টিতে উপস্থিত না থাকলেও জাতীয় শোক দিবস এবং জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞার মধ্যে ডাউনিং স্ট্রিটে এমন পার্টির কারণে আবারও প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। বার বার ক্ষমা চেয়েও তিনি রেহাই পাচ্ছেন না। তার পদত্যাগের দাবি পর্যন্ত উঠেছে।

জনসনের সাবেক সহযোগী ডমিনিক কামিংস বলছেন, ২০২০ সালের ২০ মে ডাউনিং স্ট্রিটের বাগানে পার্টি করার সময় তিনি লকডাউনের নিয়মের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে সতর্ক করেছিলেন এবং জনসন এখন এমপি’দের কাছে সেটা নিয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছেন।

‘নেতৃত্ব দিন, নয়ত সরে দাঁড়ান’: পদত্যাগের চাপে জনসন  

ওদিকে জনসন দাবি করছেন, ‘‘এটা (পার্টি) যে নিয়ম বিরুদ্ধ সে বিষয়ে কেউ আমাকে সতর্ক করেনি। আমি ভবিষ্যতে এটা মনে রাখব।”

বিবিসি থেকে প্রশ্ন করা হয়, “তিনি এমপি’দের ভুল তথ্য দিয়েছেন যদি সেটা প্রমাণ হয় তবে কী তিনি পদত্যাগ করবেন? জবাবে প্রধানমন্ত্রী জনসন বলেন, ‘‘দেখা যাক রিপোর্ট কী বলে।”

বিবিসি জানায়, কোভিড নিয়ন্ত্রণে লকডাউনের মধ্যে ডাউনিং স্ট্রিট এবং সরকারি দপ্তরগুলোতে নিয়ম ভেঙে যেসব পার্টি হওয়ার অভিযোগ উঠেছে সেগুলো নিয়ে তদন্ত করছেন জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা সু গ্রে। ওই তদন্ত প্রতিবেদন এখনও প্রকাশ করা হয়নি।

২০২০ সালের ২০ মে ডাউনিং স্ট্রিটের বাগানে ওই পার্টি হয়। তখন কামিংস ডাউনিং স্ট্রিটের কর্মী ছিলেন।

নিজের ব্লগে কামিংস ঈশ্বরের শপথ নিয়ে বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীকে সতর্ক করে বলেছিলেন ওই পার্টিতে যোগ দিলে সেটা নিয়ম লঙ্ঘন হবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী তার সতর্কবার্তা উড়িয়ে দেন।

ওই সময় ডাউনিং স্ট্রিটে কাজ করতেন এমন আরও দুজন কর্মকর্তাও কামিংসয়ের পক্ষে সাক্ষী দিয়েছেন। তারা বিবিসি-কে বলেন, কামিংস ওই দিন প্রধানমন্ত্রীকে পানপার্টির আয়োজন করার অনুমতি না দিতে পরামর্শ িয়েছিলেন। তাদের সে কথা স্মরণ আছে।

এর জবাবে সাংবাদিকদের জনসন বলেন, ‘‘আমি আপনাদের স্পষ্টতই বলছি, কেউ আমাকে কোভিড নিয়ম লঙ্ঘন হওয়ার বিষয়ে সতর্ক করে কিছু বলেনি।”

জনসনের এই বক্তব্যের পর লেবার পার্টির উপপ্রধান অ্যাঞ্জেলা রেইনার বলেন, ‘‘বরিস জনসন পরিষ্কার ভাবেই জানেন রাস্তা এখানেই শেষ।”

“তিনি প্রধানমন্ত্রী, তিনি নিয়ম তৈরি করেন, ওই পার্টিতে অংশ নিলে সেটা নিয়মের লঙ্ঘন হবে এটা তাকে অন্য কেউ বলে দেওয়ার তো কোনও প্রয়োজন নেই। যদি যুক্তরাজ্যর জনগণের প্রতি তার সামান্য সম্মানও থাকে তবে তিনি ভদ্রলোকের মত কাজ করবেন এবং পদত্যাগ করবেন।”