২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

‘ইটস কামিং হোম’ জোয়ারে সতর্ক মর্গ্যান

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বার্মিংহাম থেকে, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-07-11 23:50:09 BdST

bdnews24

এক বছর আগের স্লোগান আবার উঠছে উচ্চকিত হয়ে। স্রেফ বদলে গেছে ক্ষেত্র। ফুটবল থেকে বয়ে এসেছে ক্রিকেটে। রাশিয়া বিশ্বকাপে যখন একটু একটু এগিয়ে যাচ্ছিল ইংল্যান্ড, ট্রফি জয়ের আশায় রোমাঞ্চিত ইংলিশদের কণ্ঠে কণ্ঠে ছিল, ‘ইটস কামিং হোম’। এবার ক্রিকেট বিশ্বকাপের ট্রফি নিয়েও চলছে সেই রোমাঞ্চের দোলা। তবে সেই দোলায় এখনই আন্দোলিত হতে চান না ইংল্যান্ড অধিনায়ক ওয়েন মর্গ্যান।

ফুটবলের মতো ক্রিকেট অতটা জনপ্রিয় নয় ইংল্যান্ডে। তাই ‘ইটস কামিং হোম’ জোয়ারের তীব্রতা ফুটবলের তুলনায় কম। দল সেমি-ফাইনালে ওঠার পর থেকে মূলত শুরু হয়েছে সেই সুর। যা আরও উচ্চকিত হয়েছে সেমি ফাইনাল থেকে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় করে ইংল্যান্ড ফাইনালে পা রাখায়।

সেমি-ফাইনালের তারিখও মিলে যাওয়ায় আশার হাওয়া যেন বইছে আরও জোরেসোরে। গত বছরের ঠিক ১১ জুলাই রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনালে অতিরিক্ত সময়ের গোলে ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে ‘ইটস কামিং হোম’ স্বপ্নের সমাধি হয়েছিল ইংলিশদের। এবার ১১ জুলাইয়েই সেমি-ফাইনাল জিতে ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড।

এক বছর আগের সেই স্মৃতির সূত্র ধরেই সংবাদ সম্মেলনে মর্গ্যানের কাছে প্রশ্ন হলো, ‘ইজ ইট কামিং হোম’? হাসির জোয়ারের মধ্যেই নিজেকে সংযত রেখে ইংলিশ অধিনায়ক শোনালেন, কাজ শেষের আগেই আবেগে না ভাসার প্রত্যয়।

“এখনই অতি উচ্ছ্বাসে ভেসে যেতে চাই না। অবশ্যই সময়টা খুবই রোমাঞ্চকর। সবার জন্য, আমাদের জন্যও। আমরা যে ফাইনালে উঠে ট্রফি জয়ের সুযোগ পেয়েছি, এটি অবশ্যই দারুণ। তবে কাজ এখনও বাকি। ফাইনালে জিততে আমরা যা করতে পারি, তার সবটুকু উজাড় করে দেব।”

রোববার লর্ডসের ফাইনালে ইংলিশদের প্রতিপক্ষ নিউ জিল্যান্ড। দুই দলের কেউই আগে পায়নি শিরোপার স্বাদ। বিশ্বকাপ তাই এবার পাচ্ছে নতুন চ্যাম্পিয়ন।


ট্যাগ:  ইংল্যান্ড  মর্গ্যান  ক্রিকেট বিশ্বকাপ