নতুন বলে জাদুকরী ওকস

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-07-11 23:58:21 BdST

bdnews24

শুরুটা করেন ম্যাচের প্রথম বলে চার হজম করে। দ্রুতই ঠিক করে নেন নিজের লাইন, লেংথ। গতি, বাউন্স আর সুইংয়ে বেঁধে দেন সুর। সঙ্গত করলেন অন্যরাও। গত আসরের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে উঠল ইংল্যান্ড। স্বাগতিকদের জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান রেখে ম্যাচ সেরার পুরস্কার জিতেছেন ক্রিস ওকস।

বার্মিংহামের এজবাস্টনে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় সেমি-ফাইনালে ৮ উইকেটে জিতেছে ইংল্যান্ড। ২০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ওকস। পুরস্কার নেওয়ার সময় এই অলরাউন্ডার জানান, অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে স্নায়ু চাপকেও জয় করতে হয়েছে তাদের।

“ভাষা হারিয়ে ফেলেছি। দলের এটা অবিশ্বাস্য পারফরম্যান্স। শুরুটা হয়েছিল বোলিং দিয়ে আর ওরা যেভাবে ম্যাচ শেষ করে এসেছে, এটা অসাধারণ। স্নায়ু চাপ ছিল, ড্রেসিংরুমে কেউ কেউ চিন্তিত ছিলেন, বড় একটা টুর্নামেন্টের সেমি-ফাইনালে তা স্বাভাবিক।”    

ওকস আর নতুন বলে তার সঙ্গী জফরা আর্চারের দারুণ বোলিংয়ে শুরুতেই চাপে পড়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চকে শূন্য রানে ফেরান আর্চার। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা আরেক ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারকে ৯ রানে থামান ওকস। পরে বোল্ড করে বিদায় করেন পিটার হ্যান্ডসকমকে।

পুরান বলেও এদিন নিজের সামর্থ্য দেখিয়েছেন ওকস। শেষের দিকে মিচেল স্টার্ককে নিয়ে দলকে দ্রুত এগিয়ে নিচ্ছিলেন স্মিথ। ৪৮তম ওভারে দারুণ এক স্লোয়ারে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ককে বোকা বানান ওকস। দ্রুত একটা লেগ বাই নেওয়ার চেষ্টায় রান আউট হয়ে ফিরেন স্মিথ। ভাঙে বিপজ্জনক হয়ে ওঠা জুটি। পরের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরেন স্টার্ক। ইংল্যান্ড পায় মাঝারি লক্ষ্য।


ট্যাগ:  ইংল্যান্ড  ক্রিকেট বিশ্বকাপ  ওকস