তরুণ ও নারী ভোটার বিজয়ের হাতিয়ার: কাদের

  • নোয়াখালী প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2018-12-10 23:30:34 BdST

bdnews24

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তরুণ ও নারী ভোটাররা আওয়ামী লীগের বিজয়ে প্রধান ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

সোমাবার প্রতীক বরাদ্দ হওয়ার পর নিজ নির্বাচনী এলাকা নোয়াখালী-৫ আসনে বসুরহাট সরকারি মুজিব কলেজ গেইটে পথসভায় বক্তব্য দেন তিনি।

এ সময় তিনি জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে আগামীতে এই ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার সরকারকে আবারও ক্ষমতায় আনার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, “একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তরুণ ও নারী ভোটাররাই হবে আওয়ামী লীগের বিজয়ের প্রধান হাতিয়ার।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তরুণদের অগ্রগতির জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছেন এবং জন্ম নিবন্ধনে বাবার নামের পাশাপাশি মায়েদের নাম যুক্ত করে তাদেরকে সম্মানের আসনে বসিয়েছেন বলে কাদের মন্তব্য করেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, তরুণরা ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা ভোগ করছে। সারা বাংলাদেশের মানুষ শেখ হাসিনার অবদানে ১৪ কোটি মোবাইল ফোন ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে। উন্নয়ন ও শান্তি অব্যাহত রাখতে হলে শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার।

ওবাদুল কাদের তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদের উদ্দেশে বলেন, “তিনি ২২ বছরে যে উন্নয়ন করেননি আমি ১০ বছরে তার চেয়ে বেশি উন্নয়ন করেছি। মওদুদ সাহেব সকাল ১০টায় ভোট শেষ করে গণতন্ত্র হত্যা করে এখন আবার গণতন্ত্রের কথা বলেন। তারা মিথ্যাবাদী; ভুয়া, ভুয়া, ভুয়া।

“মওদুদ আহমদের ৫ বছরের ক্ষমতার সময় আওয়ামী লীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী মা-বাবার জানাজা পড়তে পারেনি, মামলা হামলাসহ নির্যাতনের শিকার হয়েছে। কিন্তু গত ১০ বছরে প্রতশোধ নেইনি। শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রেখেছি।”

এর আগে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত কয়েক হাজার নেতাকর্মী বসুরহাট বাসস্ট্যান্ড থেকে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে মিছিলসহ বসুরহাট বাজার প্রদক্ষিণ করেন।

এ সময় নেতাকর্মীরা নৌকা প্রতীক ও বর্ণিল প্লেকার্ড নিয়ে শ্লোগান দেন।

রাতে ওবায়দুল কাদের কবিরহাট উপজেলা সদরের জিরো পয়েন্টে নির্বাচনী পথসভায় বক্তব্য রাখেন।

অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী, কবিরহাট পৌরসভার মেয়র জহিরুল হক রায়হান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আমিন রুমি।