১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৬ বৈশাখ ১৪২৬

বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের পরিবারকে বাড়ি দিল নৌবাহিনী

  • নোয়াখালী প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-01-11 20:41:23 BdST

bdnews24

বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিনের পরিবারকে নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে নতুন বাড়ি করে দেওয়া হয়েছে।

নৌবাহিনীর চট্টগ্রাম অঞ্চলের কমান্ডার রিয়ার অ্যাডমিরাল এম আবু আশরাফ জানান, নৌবাহিনীর পক্ষে ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত পাঁচ কক্ষের একটি পাকা বাড়ি আসবাবপত্রে সাজিয়ে শুক্রবার সকালে হস্তান্তর করা হয়।

রুহুল আমিনের ছোট ছেলে শওকত আলী বাড়ির চাবি নেন এই নৌ কর্মকর্তার কাছ থেকে।

শওকত বলেন, “নতুন পাকা বাড়ি পেয়ে ভীষণ খুশি হয়েছেন পরিবারের সদস্যরা, যা ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। এ জন্য সরকার ও নৌবাহিনীর প্রতি আমরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।”

রুহুল আমিনের জন্ম নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলার রুহুল আমিন নগরে।

শওকত বলেন, ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর খুলনার রূপসা নদীতে যুদ্ধজাহাজ পলাশে সম্মুখ যুদ্ধে শহীদ হন তার বাবা রুহুল আমিন। এরপর রূপসা নদীর তীরে তার দাফন হয়।

“তার স্মৃতিরক্ষায় ২০০৮ সালে সরকারিভাবে স্থাপন করা হয় বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিন গ্রন্থাগার ও স্মৃতি জাদুঘর। তার পরিবারের দেওয়া ২০ শতক জমিতে নির্মাণ করা হয় স্মৃতি কমপ্লেক্স।”

শওকত বলেন, তিনি তার পরিবার নিয়ে থাকতেন ১৯৮৫ সালে নৌবাহিনীর দেওয়া একটি ঘরে। পুরনো ঘরটি বসবাসের অনুপযোগী হয়ে পড়ে অনেক দিন আগে। বিষয়ে নজরে আসার পর নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে পুরনো ঘরের জায়গায় তৈরি করা হয় ১৬৮০ বর্গফুটের এই পাকা বাড়িটি।

নৌ কর্মকর্তা আবু আশরাফ বলেন, “রুহুল আমিনের পরিবারের জন্য কিছু করতে পেরে আমরা গর্বিত।”

রুহুল আমিনের ছেলের চিকিৎসা ও ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার ব্যবস্থা করার আশ্বাস দেন তিনি।

নোয়াখালী জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মাহে আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আবু ইউছুফ, সোনাইমুড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ারুল হক কামাল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) টিনা পালসহ নৌবাহিনী ও প্রশাসনের বিভিন্ন প্রর্যায়ের কর্মকর্তারা বাড়ি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে ছিলেন।


ট্যাগ:  নোয়াখালী জেলা  সোনাইমুড়ী উপজেলা