২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

মুন্সীগঞ্জে ট্রলার ডুবে ২০ শ্রমিক নিখোঁজের খবর

  • মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-01-16 14:13:43 BdST

bdnews24

মুন্সীগঞ্জে মেঘনা নদীতে তেলের ট্যাংকারের ধাক্কায় মাটিবোঝাই ট্রলার ডুবে ২০ শ্রমিক নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারুক আহম্মেদ জানান, চরঝাপটার কাছে সোমবার রাত ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে তারা জানতে পেরেছেন।

ডুবে যাওয়া ট্রলার বা তার মালিককে এখনও শনাক্ত করতে পারেনি প্রশাসন।

ওই ট্রলারের ১৪ শ্রমিক সাঁতরে তীরে উঠেছেন জানিয়ে ইউএনও ফারুক বলেন, কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে ট্রলারে মাটি তুলে নিয়ে ৩৪ শ্রমিক নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার বক্তাবলী যাচ্ছিলেন। চরঝাপটার কাছে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি তেলবাহী ট্যাংকার ট্রলারে ধাক্কা দিলে ট্রলারটি ডুবে যায়।

“কুয়াশাচ্ছন্ন গভীর রাতের এই ঘটনায় দুর্ঘটনার স্থান চিহ্নিত করতে সমস্যা হচ্ছিল। বেঁচে যাওয়া শ্রমিকদের নিয়ে এখন দুর্ঘনার স্থান ও দুর্ঘটনায় পড়া ট্রলারটি শানাক্ত করার চেষ্টা চলছে। পুলিশ, কোস্টগার্ড ও ফায়ার সার্ভিস কাজ করছে।”

সাঁতরে তীরে ওঠা শ্রমিকদের বরাতে তিনি বলেন, “ট্রলারটির কেবিনে ঘুমিয়ে ছিলেন ২০ শ্রমিক। তাদে ভাগ্যে কী ঘটেছে এখনও জানা যায়নি। তাদের মধ্যে ১৮ জনের পরিচয় দিয়েছেন ফিরে আসা শ্রমিকরা।”

১৮ জনের মধ্যে ১৭ জনের বাড়ি পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় আর একজনের বাড়ি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বলে তিনি জানান।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার পাবনার ভাঙ্গুড়া থানায় ওসির মাধ্যমে ট্রলার ডুবির খবর পান তারা।

“কিন্তু নৌপুলিশ এ রকম কোনো ঘটনার তথ্য মেলাতে পারেনি।”

বুধবার সকাল থেকে ফিরে আসা শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার অভিযান জোরদার করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এ ঘটনা নিখোঁজদের স্বজনরা এখনও থানায় জিডি করেনি বলে তিনি জানান।

নিখোঁজ ১৮ জন হলেন পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের মুণ্ডুমালা গ্রামের গোলাই প্রামাণিকের ছেলে সোলেমান হোসেন, জব্বার ফকিরের ছেলে আলিফ হোসেন ও মোস্তফা ফকির, গোলবার হোসেনের ছেলে নাজমুল হোসেন ১, আব্দুল মজিদের ছেলে জাহিদ হোসেন, নূর ইসলামের ছেলে মানিক হোসেন, ছায়দার আলীর ছেলে তুহিন হোসেন, আলতাব হোসেনের ছেলে নাজমুল হোসেন-২, লয়ান ফকিরের ছেলে রফিকুল ইসলাম, দাসমরিচ গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে ওমর আলী ও মান্নাফ আলী, তোজিম মোল্লার ছেলে মোশারফ হোসেন, আয়ান প্রামাণিকের ছেলে ইসমাইল হোসেন, সমাজ আলীর ছেলে রুহুল আমিন, মাদারবাড়িয়া গ্রামের আজগর আলীর ছেলে আজাদ হোসেন, চণ্ডীপুর গ্রামের আমির খান ও আব্দুল লতিফের ছেলে হাচেন আলী ও উল্লাপাড়া উপজেলার গজাইল গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে রহমত আলী।


ট্যাগ:  মুন্সীগঞ্জ জেলা  মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা