২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

মুন্সীগঞ্জ ও ঠাকুরগাঁওয়ে সাপের কামড়ে ২ জনের মৃত্যু

  • মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-07-18 21:36:56 BdST

মুন্সীগঞ্জ ও ঠাকুরগাঁওয়ে সাপের কামড়ে নারীসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর ও ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলায় বৃহস্পতিবার এ দুটি ঘটনা ঘটে।

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, নিহত সাফিয়া বেগম (৬০) কুকুটিয়া ইউনিয়নের বনগাঁও গ্রামের মৃত মোসলেম শেখের স্ত্রী।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিবারের সদস্যরা জানান, বৃহস্পতিবার সাফিয়া বেগম বসত ঘরে শুয়ে থাকা অবস্থায় তাকে সাপে কামড় দেয়। এ সময় ঘর থেকে বিষাক্ত সাপ বের হতে দেখা গেছে। শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সাপে কাটার প্রতিষেধক না থাকায় ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়েছে।

বনগাঁও গ্রামের বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম মোল্লা, মো. সোহাগসহ অনেকেই জানান, বর্ষাকালে এলাকায় বিষাক্ত সাপের উপদ্রুপ বেড়েছে।

তারা দুঃখ প্রকাশ করে জানান, সাপে কাটা রোগী সাফিয়া বেগমকে নিয়ে প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। মাঝপথে জানতে পারেন ওখানে সাপে কাটা রোগীর প্রতিষেধক নেই! তাই তাকে নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলেও বাচাঁনো যায়নি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সৈয়দ রেজাউল ইসলামের বলেন, “দেড় বছর আগে সাপে কাটা রোগীর প্রতিষেধক ভ্যাকসিন এসেছিল। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে এখন ভ্যাকসিন আসছে না।

“তাই সাপে কাটা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে পারছি না।”

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি জানান, নিহত রিপন (১৫) ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের রণহাট্টা গ্রামের একরামুলের ছেলে। তিনি রণহাট্টা চৌরঙ্গী উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্র।

উপজেলার ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি পরিবারের বরাতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সকাল ৮টার দিকে কয়েকজন সহপাঠীকে সঙ্গে দিয়ে বাড়ির পাশে বড় একটি বিলে মাছ ধরতে যান স্কুলছাত্র রিপন।

“পানিতে নামার সময় একটি বিষধর সাপ রিপনকে দংশন করে। এসময় সহপাঠী ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হরিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। সেখানে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।”


ট্যাগ:  মুন্সীগঞ্জ জেলা  ঢাকা বিভাগ