১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

গাজীপুরে ‘বলাৎকারের ভিডিও ছড়ানোর হুমকিতে’ আত্মহত্যা

  • গাজীপুর প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-20 19:13:56 BdST

bdnews24

গাজীপুরে চাঁদার দাবিতে এক ব্যক্তিকে বলাৎকারের পর নগ্ন ছবি-ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানোর হুমকিতে লজ্জায় আত্মহত্যা করেছেন বলে পরিবার অভিযোগ করেছে।

শ্রীপুর থানার ওসি মো. লিয়াকত আলী জানান, তেলিহাটি টেপিরবাড়ী গ্রামের জামাল উদ্দিনের (৪৫) ওপর এই নির্যাতন হয় বলে তারা অভিযোগ পেয়ে একজনকে আটক করেছেন।

জামাল ওই গ্রামের আহাদ আলীর ছেলে।

আটক মনির হোসেন (৩২) একই গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।

নিহত জামালের ছেলে হৃদয় বলেন, “কয়েক দিন ধরে বাবার কাছে চাঁদা দাবি করে আসছিল স্থানীয় চান মিয়ার ছেলে সিয়াম, রইছ উদ্দিনের ছেলে সাদেক মিয়া, তাদের সহযোগী রনি, পিন্টু, সজল, শাওনসহ কয়েকজন।

“টাকা না দেওয়ায় রোববার বিকালে তারা বাবাকে ডেকে বনে নিয়ে বলাৎকার করে। একই সঙ্গে তারা ছবি ও ভিডিও ধারণ করে। সেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তারা সোমবারের মধ্যে দুই লাখ টাকা চাঁদা চায়। বাবা আত্মীয়-স্বজনদের কাছে বিষয়টি জানান। নিরাপত্তার কথা ভেবে সোমবার বাড়ির লোকজনকে আত্মীয়বাড়ি পাঠিয়ে দেন বাবা। এরপর তিনি লোকলজ্জার ভয়ে ঘরের বারান্দায় আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।”

দুপুরে প্রতিবেশীরা ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

শ্রীপুর থানার এসআই মো. নয়ন ভুঁইয়া বলেন, ঘটনা জানতে পেরে স্থানীয়রা তাকে থানায় সাধারণ ডায়েরি করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার আগেই তার মৃত্যু হওয়ায় থানায় মামলা হয়েছে।

ওসি লিয়াকত বলেন, সোমবার চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন জামালের ছেলে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে সোমবার মনিরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।