২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

‘টিভিতে সাক্ষাৎকার দেওয়ায়’ জেলেকে নির্যাতনের অভিযোগ

  • তাজুল ইসলাম রেজা, গাইবান্ধা প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-10-19 22:30:20 BdST

bdnews24

টেলিভিশনে কথা বলার পর গাইবান্ধায় এক জেলেকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বেদম মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

শনিবার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাশহর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার সম্ভু হাওলাদার (৩৮) গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জ মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি ও মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের জিরাই গ্রামের মৃত চৈতা হাওলাদারের ছেলে।

তাকে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

সম্ভু হাওলাদারের অভিযোগ, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার একাধিক সরকারি জলাশয় ইজারা দেওয়া নিয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ইন্ডিপেন্ডেট টেলিভিশনে সম্প্রতি প্রচারিত হয়। সেখানে সম্ভু হাওলাদার একটি সাক্ষাৎকার দেন।

সম্ভু বলেন, তিনি ওই সাক্ষাৎকারে ‘জাল যার জলাভূমি তার’ এই শ্লোগান এখন পরিবর্তন হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন; এবং বলেন এখন ‘ক্ষমতা যার জলা তার’।

“এই সাক্ষাৎকার দেওয়ার কারণে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় শাহিন মিয়া (৪৫) ও তার কয়েকজন সহযোগী শনিবার আমাকে মারপিট করে।”

শাহিন মিয়া এই উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের দইহারা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। হামলাকারী অন্যদের পরিচয় তিনি জানাতে পারেননি।

সম্ভু মাঝির পরিবারের সদস্যরা বলেন, শনিবার বেলা ১১টার দিকে শাহিন মিয়া ও তার কয়েকজন সহযোগী সম্ভু হাওলাদারকে বাড়ি থেকে পার্শ্ববর্তী কোচাশহর বাজারে নিয়ে যান। সেখানে তাকে বেদম মারপিট করেন। এ সময় তার আর্তচিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান।  

গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি এ কে এম মেহেদি হাসান বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে; কিন্তু দুর্বৃত্তদের আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে তাদের আটকে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে।

এ ব্যাপারে শাহিন মিয়ার সঙ্গে কথা বলা সম্ভব হয়নি।


ট্যাগ:  রংপুর বিভাগ  গাইবান্ধা জেলা