গৃহবধূকে ধর্ষণের পর স্বামীকে হত্যা

  • জামালপুর প্রতিনিধি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-19 09:35:06 BdST

bdnews24

জামালপুরে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর তার স্বামীকে হত্যা করেছে একদল দুর্বৃত্ত।

তারা ধর্ষণের পর ওই নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন চালানোর পাশাপাশি তার স্বামীর লাশ গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা বলেও প্রচার করেছিল বলে স্থানীয়রা জানায়।

ঘটনাটি শোনার পর পুলিশ গিয়ে এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে বলে জানিয়েছেন জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান।

ওই গৃহবধূ তিনজনকে আসামি করে মামলা করেছেন। তারা হলেন- সদর উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের রামকৃষ্ণপুর গ্রামের ছানোয়ার হোসেন, শাওন ও রফিজ উদ্দিন। এদের মধ্যে শাওন ধরা পড়েছেন।

শুক্রবার রাতে এই ঘটনা ঘটলেও সোমবার রাতে গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতায় ওই গৃহবধূ সদর হাসপাতালে ভর্তি হন এবং থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ গ্রেপ্তার করে আসামি শাওনকে।

এক কাঠমিস্ত্রির স্ত্রী ওই নারী সাংবাদিকদের বলেন, শুক্রবার রাত ৮টায় তিনি ঘরের বাইরে নলকূপ থেকে পানি নেওয়ার সময় ছানোয়ার, শাওন ও রফিজ তাকে মুখ চেপে ধরে পাশের জঙ্গলে নিয়ে যায়। এরপর তিনজনই তাকে ধর্ষণ করে। তখন তার স্বামী বাজার থেকে ফিরলে তাকে আটকায় ওই দুর্বৃত্তরা। তাকে গাছের সঙ্গে বেঁধে তার স্বামীকে হত্যার পর বাড়ির পাশে অন্য একটি গাছে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে।

শনিবার সকালে সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই গৃহবধূর স্বামীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় এবং অপমৃত্যুর মামলা করে। কিন্তু ওই গৃহবধূকে হাসপাতালে ভর্তি বা নির্যাতনের ঘটনায় কোনো মামলায় নেয়নি।

নির্যাতিতদের পরিবারের অভিযোগ, এলাকার প্রভাশালীরা ধর্ষণকারীদের পক্ষ নেয়।

সোমবার রাতে ওই গৃহবধূকে নিয়ে জামালপুর প্রেস ক্লাবে হাজির হন তার শ্বশুর। তখন গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতায় তাকে রাতেই জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক হাসানুল বারী শিশির সাংবাদিকদের বলেন, নির্যাতিত ওই গৃহবধূর দেহের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। মঙ্গলবার তার ডাক্তারি পরীক্ষা হবে।

ওই গৃহবধূর মামাশ্বশুর আমির খান অভিযোগ করেন, থানায় মামলা করার পর শ্রীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল হক ফনি মোবাইলে ফোন করে তাদের ‘দেখে নেওয়ার হুমকি’ দেন। এজন্য তারা নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

জামালপুর সদর থানার ওসি সালেমুজ্জামান বলেন, “নির্যাতিত গৃহবধূ বাদী হয়ে তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে পুলিশ গভীর রাতে শাওন নামে এক আসামিকে মধুপুর থেকে গ্রেপ্তার করে।”


ট্যাগ:  ময়মনসিংহ বিভাগ  জামালপুর জেলা