খুলনায় বাস চলাচল শুরু হচ্ছে

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-19 20:10:06 BdST

bdnews24
রাজশাহী

পরিবহনে দ্বিতীয় দিনের কর্মবিরতি শেষে খুলনার অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলাচল শুরু হচ্ছে বলে শ্রমিক নেতারা জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার খুলনা সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসক হেলাল হোসেনের সঙ্গে মালিক-শ্রমিকদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠক শেষে খুলনা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন বলেন, “বৈঠকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগামী কয়েক দিন নতুন সড়ক আইন বাস্তবায়ন কিছুটা শিথিল করার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। তাই ইউনিয়নের পক্ষ থেকে চালক ও মালিকদের গাড়ি চালানোর অনুরোধ করা হচ্ছে। বুধবার থেকে চালকরা গাড়ি চালাবেন।”

জাকির বলেন, “খুলনায় গাড়ি চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও সমস্যা হল অন্যান্য জেলার শ্রমিকদের নিয়ে। খুলনা থেকে অন্যান্য রুটে বাস গেলেই সেখানকার শ্রমিকরা তা আটকে দেন। তার পরও বুধবার থেকে অন্তত অভ্যন্তরীণ রুটে বাস চলবে বলে আশা করা যাচ্ছে।”

বৈঠকে খুলনার পুলিশ সুপার এস এম শফিউল্লাহ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ইউসুফ আলী ছিলেন।

শাস্তির মাত্রা বাড়িয়ে প্রণীত নতুন সড়ক পরিবহন আইন সোমবার থেকে কার্যকর শুরুর পর বিভিন্ন জেলায় বাস চলাচল বন্ধ করে দেন শ্রমিকরা। এরপর মঙ্গলবার সারাদেশে ট্রাক ধর্মঘটেরও ঘোষণা আসে। তবে কোথাও কোথাও চলাচল করছে।

বাস-ট্রাক বন্ধের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো সিদ্ধান্ত না হলেও চালকরা নিজেরাই বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন বলে পরিবহন নেতাদের ভাষ্য।

এদিকে বগুড়ায় বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। তবে ত্রুটিপূর্ণ বাস ও লাইসেন্সবিহীন চালকরা রাস্তায় না নামায় বাসের সংখ্যা কম দেখা গেছে।

রাজশাহী থেকে সারা দেশের সঙ্গে বাস চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকেই ঢাকা, রংপুর, বগুড়া, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও পাবনার উদ্দেশে রাজশাহীর বাস ছেড়ে গেছে।

তবে অন্যান্য দিনের চেয়ে সড়কে কম বাস দেখা গেছে।

রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলী বলেন, রাজশাহীর সব বাসই চলাচল করছে। কোনো অসুবিধা হচ্ছে না। তবে অন্যান্য জেলার বাস কম আসছে রাজশাহীতে। যেসব বাস আসছে তারা ঠিকভাবে রাজশাহী থেকে যাত্রী নিয়ে চলেও যাচ্ছে। তবে চালকরা নতুন পরিবহন আইন-২০১৮ নিয়ে ভয় ও আতঙ্কে রয়েছেন।

এদিকে বাসের সংখ্যা কম থাকায় যেসব বাস চলছে তাদের বিরুদ্ধে ভাড়া বেশি নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে রাজশাহীতে। অনেক যাত্রী চলাচলের জন্য অটোরিকশায় চলাচল করছেন।

নেত্রকোণায় আন্তঃজেলা বাস চলাচল করলেও স্থানীয় ও দূরপাল্লার বাস বন্ধ রয়েছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সকালে ঢাকার বাস ছেড়ে গেছে। অনেক জায়গা ট্রাক ধর্মঘট হলেও জয়পুরহাটে চলাচল করছে স্বাভাবিকভাবেই।

[প্রতিবেদন তৈরিতে তথ্য পাঠিয়েছেন খুলনা, রাজশাহী, বগুড়া, নেত্রকোণা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ  প্রতিনিধি]