ঝালকাঠিতে স্মৃতিস্তম্ভ থেকে ভেঙে ফেলা হলো বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য

  • ঝালকাঠি প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-24 14:02:16 BdST

bdnews24

ঝালকাঠিতে নলছিটি উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধের ম্মৃতিস্তম্ভ থেকে রাতের আঁধারে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধাদের চারটি ভাস্কর্য ভেঙে ফেলা হয়েছে।

নলছিটি থানার ওসি মো.শাখাওয়াত জানান, উপজেলার ষাটপাকিয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকার ঝালকাঠি-বরিশাল-খুলনা মহাসড়কের পাশে শনিবার রাতের কোনো এক সময় এ ঘটনা ঘটে।

ওসি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, পাঁচ বছর আগে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন বিভিন্নভাবে অর্থ সংগ্রহ করে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভটি নির্মাণ করেন।

“অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা স্তম্ভ থেকে বঙ্গবন্ধুসহ মোট চারটি ভাস্কর্য ভেঙে ফেলে। সকালে সেগুলো পাশের একটি খাল থেকে উদ্ধার করা হয়।”

মুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিনের ছেলে মো. মাসুম হাওলাদার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, একাত্তরে ষাটপাকিয়া বাসস্ট্যান্ড এলাকার ওই স্থানটির কাছে চাচৈর স্থানে ঝালকাঠি জেলার মধ্যে সবচে বড় সম্মুখযুদ্ধ হয়। এখানে পাকিস্তানি বাহিনী নির্মম অত্যাচার ও হত্যাযজ্ঞ চালায়।

“তাই একাত্তরের স্মৃতি রক্ষায় আমার বাবা ধারদেনা করে এবং বন্ধু-বান্ধদের কাছ থেকে সাহায্য এনে মুক্তিযুদ্ধের এ স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করেন।

“মুক্তিযোদ্ধা ওই স্তম্ভের উপড়ে বঙ্গবন্ধু এবং তিন মুক্তিযোদ্ধার ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছিল”- বলে কেঁদে ফেলেন মাসুম।

প্রায় ছয় মাস আগে তার বাবা মারা যান বলে জানান তিনি।

এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে ঝালকাঠি জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার দুলাল সাহা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধীরা এ কাজ করেছে। খুব তাড়াতাড়ি এ ঘটনার প্রতিবাদে কর্মসূচি ডাকা হবে।“

আর এ ঘটনায় জড়িতদের খুঁবে বের করে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দিয়েছেন ওসি শাখাওয়াত।


ট্যাগ:  ঝালকাঠি সদর উপজেলা  ঝালকাঠি জেলা  বরিশাল বিভাগ