হবিগঞ্জে পুলিশের হ্যান্ডকাপসহ আসামি চম্পট

  • হবিগঞ্জ প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-21 23:50:47 BdST

bdnews24

হবিগঞ্জে পুলিশ হ্যান্ডকাপ পরিয়ে থানায় নেওয়ার সময় দুই আসামি পালিয়ে গিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

পুলিশের হাত থেকে হ্যান্ডকাপসহ দুই আসামি পালিয়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে। যদিও পুলিশের পক্ষ থেকে এখনও কোন কিছু সাংবাদিকদের জানানো হয়নি।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পূর্ব জয়পুর গ্রামে আসামিরিা পালানোর পর এতে সহযোগিতার অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নারীসহ সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, ওই গ্রামের আবু মিয়ার স্ত্রী রিনা বেগম (৩৫), রফিক মিয়ার স্ত্রী অলিনা খাতুন (৩২), রফিক মিয়ার বোন জাহানারা খাতুন (২৮), মোতালিব মিয়ার মেয়ে শাবানা (১৮), জাহির মিয়ার ছেলে জীবন (১৫), আব্দুর রহিমের ছেলে মুন্সি আলম (২০) ও ছেরাগ আলীর স্ত্রী শহিদা খাতুন (৫০)।

বাহুবল সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পারভেজ আলম চৌধুরী বলেন, “আমি এখনও বিস্তারিত জানতে পারিনি।

“তবে প্রাথমিকভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতজনকে আটক করা হয়েছে বলে শুনেছি। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।”

স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের জাহির মিয়া ও তার ছোট ভাই কালাম মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছে। সম্প্রতি কালাম মিয়ার স্ত্রী নাছিমা বেগম বিভিন্ন অভিযোগ এনে ভাসুর ও ভাসুরের ছেলে বিরুদ্ধে বাহুবল থানায় একটি মামলা করেন।

এটির এফআইয়ার হওয়ার পর শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি জাহির মিয়া ও তার ছেলে হৃদয়কে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের নিয়ে যাওয়ার সময় স্বজনরা হই-হুল্লোড় শুরু করলে পুলিশের কাজে বিঘ্ন ঘটে। এর ফাঁকে গ্রেপ্তারকৃত দুই আসামি হ্যান্ডকাপসহ পালিয়ে যায় বলে জানান তারা।

খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বিপুল সংখ্যক পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। এ সময় আসামিদের পালাতে সহযোগিতা করার অভিযোগে পাঁচ নারীসহ সাতজনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

ওসি মোহাম্মদ কামরুজ্জামানের মোবাইলে এ বিষয়ে জানতে একাধিকবার করলেও তিনি ফোন ধরেননি।


ট্যাগ:  সিলেট বিভাগ  হবিগঞ্জ জেলা