ফতুল্লায় গ্যাসের আগুনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫

  • নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-25 13:14:32 BdST

bdnews24

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় গ্যাসের আগুনে দগ্ধ পরিবারের আরও দুইজনের মৃত্যু হয়েছে; এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো পাঁচজনে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হিরণ মিয়া (২৩)। তার আগে সোমবার মধ্যরাতে মারা যায় তার ভাতিজা জোবায়ের আপন (১০)।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ফতুল্লার সাহেবপাড়ায় একটি পাঁচতলা বাড়ির নিচতলায় গ্যাসের আগুনে আটজন দগ্ধ হন।

ঘটনার দিনই মারা যান ওই পরিবারের সবচেয়ে বয়স্ক নারী নূরজাহান বেগম; একদিন পর তার ছেলে কীরণ মিয়ার মৃত্যু হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

কীরণের ছেলে আবুল হোসেন ইমন (২২) সোমবার মারা যান।  এক দিন পর মারা গেল বড় ছেলে আপন ও ভাই হিরণ।

কীরণ মিয়ার ভায়রা মোস্তফা খান বলেন, হিরণের স্ত্রী মুক্তা আক্তার, মেয়ে ইলমা ও ভাগ্নে কাউসার এখনও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থাও ভালো নয় বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সাহেবপাড়া এলাকার ওই বাসায় পরিবার নিয়ে ভাড়া থাকতেন গার্মেন্ট এক্সেসরিজের ব্যবসায়ী কীরণ।  ১৭ ফেব্রুয়ারি সকালে পরিবারের কেউ রান্নাঘরে গ্যাসের চুলা জ্বালাতে গেলে পুরো বাসায় আগুন ধরে যায়। তাতে পুড়ে যায় বাসার সব আসবাবপত্র।

ফায়ার সার্ভিসের ধারণা, ওই ফ্ল্যাটের চুলার চাবি রাত থেকেই খোলা ছিল। তাতে সারারাতে পুরো ঘরে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে এবং সকালে ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

 


ট্যাগ:  ঢাকা বিভাগ  নারায়ণগঞ্জ জেলা