পিরোজপুরে তিন নারীকে বেঁধে ভেঙেছে বসতঘর

  • পিরোজপুর প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-25 20:23:44 BdST

bdnews24

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় তিন নারীকে গাছে বেঁধে তাদের বসতঘর গুঁড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার পশ্চিম পাতাকাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ইসমাইল হোসেন।

এ ঘটনায় দুইজনকে আটক করা হয়েছে বলে মঠবাড়িয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল হক জানান।  

হামলায় ওই বাড়ির নূরুন্নাহার (৭০), তার বোন হোসনে আরাসহ (৬৫) আরও এক নারী আহত হয়েছেন বলেও ইউপি সদস্য জানান। 

বৃদ্ধা নুরুন্নাহার বলেন, তারা তাদের পৈত্রিক সম্পত্তিতে বসতঘর উঠিয়ে প্রায় ৩০ বছর ধরে বসবাস করে আসছিলেন। গত ৮/৯ বছর ধরে তাদের সীমানার মধ্যে জমি পান বলে দাবি করে আসছিলেন একই বাড়ির সাইদ মৃধা। এ নিয়া উপজেলা পরিষদে এবং থানায় শালিসও চলছে।

নুরুন্নাহারের অভিযোগ, মঙ্গলবার সকালে দেড় শতাধিক ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দেশি অস্ত্র নিয়ে তাণ্ডব চালায়। এরপর সন্ত্রাসীরা তাকেসহ আরও দুই নারীকে গাছে বেঁধে মারধর করে; ঘর ভাংচুর করে এবং ঘরে রক্ষিত নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, জমির দলিলপত্র, পাসপোর্ট ও মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

আহতদের স্থানীয়ভাবে চিকিসা দেওয়া হয়েছে বলে ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেন জানান।  

ইসমাইল বলেন, “বিষয়টি নিয়ে শালিস প্রক্রিয়া চলমান থাকার পরও সাইদ মৃধা ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে বসতঘরটি গুড়িয়ে দিয়েছে।”

পরিদর্শক আব্দুল হক আরও জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ রুহুল (২৫) ও ইয়াসিন (২২) নামে দুইজনকে আটক করেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এ ব্যাপারে সাইদ মৃধার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।


ট্যাগ:  পিরোজপুর জেলা  বরিশাল বিভাগ