কক্সবাজারে সব পশুর হাট বন্ধ ঘোষণা

  • কক্সবাজার প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-21 23:33:09 BdST

bdnews24

নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে কক্সবাজার জেলার সব গবাদি পশুর হাট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন।

শনিবার বিকালে জেলা প্রশাসেনর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে এক বিবৃতিতে গবাদি পশু থেকে যাতে করোনাভাইরাস সংক্রমণ না ঘটে তার জন্য জেলার সব গবাদির পশু হাট বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

‘জনস্বার্থে পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত’ সব পশুর হাট বন্ধ রাখার কথা কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন বলেছেন।

এটা অমান্য করলে আইন অনুযায়ী কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হুঁশিয়ারও করা হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এই বিবৃতিতে।

দেশে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠা, বিনোদন কেন্দ্রসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বন্ধের পাশাপাশি আসন্ন স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন ও বঙ্গভবনে সংবর্ধনার অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে প্রশাসনের কঠোর অবস্থানে কথা বলতে গিয়ে এতে লেখা হয়, ‘বিশ্বময় সংকট করোনাভাইরাসকে প্রতিরোধে অনেকগুলো পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে জেলা প্রশাসন। ইতিমধ্যে পর্যটক আগমনকে নিরুৎসাহিত করার পাশাপাশি জেলা সব পর্যটন কেন্দ্রগুলোকে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

“এছাড়া স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। জেলার সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

“তাছাড়াও হোম কোয়ারেন্টাইন অমান্য করে ঘুরাঘুরি করার দায়ে বিদেশফেরত কয়েকজন প্রবাসীকে ইতিমধ্যে জরিমানা করা হয়েছে।”

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণের এ মহামারীতে দেড়শর বেশি দেশে বাংলাদেশে দুজনসহ ১১ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিষেধকহীন এ রোগ নিয়ন্ত্রণে জনসমাগম এড়িয়ে চলাকে দুনিয়াব্যাপী গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বিভিন্ন দেশ লকডাউন ঘোষণা করে নাগরিকদের ঘরের ভেতর থাকা নির্দেশ দিয়েছে।

এদিকে, আশঙ্কাগ্রস্ত মানুষ নিত্যপণ্য কেনাকাটা বাড়িয়ে দেওয়ায় দেশের সকখানে কিছু ব্যবসায়ী পণ্যের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। অন্য অনেক জেলার মত কক্সবাজারেও বাজার নিয়ন্ত্রণে বেশি দামে পণ্য বিক্রির অপরাধে শহরের বড় বাজারের ৭ দোকানদারকে এক লক্ষ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া একজন পাইকারি দোকানদারকে সাত দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ শাহরিয়ার মোক্তার।

জরিমানাপ্রাপ্ত দোকানগুলো হলো-কক্সবাজার শহরের বড় বাজারের ইমন স্টোর ৫০ হাজার, বার আউলিয়া স্টোর ও মোক্তার স্টোর ৩০ হাজার, হাসান ট্রেডার্স ২০ হাজার টাকা, রিমা স্টোর ২০ হাজার টাকা ও হমেল ট্রেডার্স ২০ হাজার এবং রাসেল ট্রেডার্স ১০ হাজার টাকা।

এ সময় একই অভিযোগে পাইকারি দোকানদার কাশেম এন্ড সন্সের সত্ত্বাধিকারী মিজানুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। তাকে ৩০ হাজার জরিমানা ছাড়াও ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

উদ্ভুদ পরিস্থিতিতে কেউ যেন মুনাফার লোভে নিত্য-প্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ করতে না পারে সেই লক্ষ্যে বাজার মনিটরিং অব্যাহত রাখবে বলেও জানানো হয়েছে।


ট্যাগ:  চট্রগ্রাম বিভাগ  কক্সবাজার জেলা