কক্সবাজারে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্ত এক ওমরা ফেরত নারী

  • কক্সবাজার প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-24 15:59:13 BdST

bdnews24

কক্সবাজারে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্ত হয়েছেন; যিনি ওমরা হজ পালন করে সৌদি আরব থেকে সদস্য দেশে ফিরেছেন।

মঙ্গলবার দুপুরে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন এ কথা জানিয়েছেন, জেলার চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে ষাটোর্ধ্ব বয়সী এ নারী গত ১৩ মার্চ সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরেন।

“তিনি কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় আইইডিসিআর এ পাঠানো হয়েছিল।

“মঙ্গলবার সকালে এ রিপোর্ট হাতে পাওয়া গেছে।”

রিপোর্ট পাওয়ার পরপরই এ নারীকে চিকিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক ও নার্সদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

“তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল থেকে চট্টগ্রামের বিশেষ হাসাপাতালে পাঠানো হচ্ছে”, বলছিলেন জেলা প্রশাসক।

একই সঙ্গে এ নারীর গ্রামের বাড়ি ও তার আশপাশের এলাকায় লকডাউন করা হয়েছে। ওই নারী সৌদি আরব থেকে এসে চট্টগ্রামের যে বাড়িটিতে ছিলেন ওই বাড়িটিও লকডাউন করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

জেলা প্রশাসক বলেন, কক্সবাজার শহর জুড়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান, ওষুধের দোকান ছাড়া অন্য সব দোকান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেনাবাহিনী ও নৌ-বাহিনীর সদস্যরা মাঠে নামছেন। কক্সবাজারের সদর, রামু, উখিয়া, চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় সেনাবাহিনীর ৯টি দল থাকবে। এছাড়া টেকনাফ, মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় নৌ-বাহিনীর সদস্যরা কাজ করবে বলে জানানো হয়েছে।

মূলত হোম কোয়ারেন্টাইন নির্দেশ মেনে চলা, গণরিবহন সীমিত করার ক্ষেত্রে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা বেশি নজর দেবেন বলেন জেলা প্রশাসক।

এ জেলায় কক্সবাজারে হোম কোয়েরেন্টিনে রয়েছেন অন্তত ৩০০ জন। এদের মধ্যে তিনজনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করতে ঢাকায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট- আইইডিসিআর-এ পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে দুইজনের ফলাফল নেগেটিভ  আসলেও  মক্কা ফেরত এ নারীর করোনাভাইরাস পজেটিভ এসেছে।

বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসের ব্যাপক সংক্রমণ ঠেকাতে সারা দেশে ছুটি ঘোষণার পর মঙ্গলবার গণপরিবহন, লঞ্চ ও ট্রেন চলাচল বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

মধ্যপ্রাচ্যে মসজিদে নামাজ পড়া বন্ধ করে দিলেও, বাংলাদেশে ইসলামিক ফাউন্ডেশন গত জুমায় মসজিদে স্বল্প সময় থাকার পরামর্শ দেয়। আর দেশের আলেম সমাজও এখনও মসজিদ ছেড়ে ঘরে ইবাদত করার ব্যাপারে দ্বিধাগ্রস্ত।


ট্যাগ:  কক্সবাজার জেলা  চট্টগ্রাম বিভাগ