ফরিদপুরে যুবলীগ নেতার ৩টি ট্রলি পুড়িয়ে দিল

  • ফরিদপুর প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-01 20:43:04 BdST

bdnews24

সড়কের পাশে পুকুর থেকে বালু উত্তোলনে অভিযোগে ফরিদপুরে যুবলীগ নেতার বালুবাহী ট্রাক্টরের ট্রলি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে কিছু স্থানীয়।

বুধবার দুপুরের দিকে উপজেলার কাওলীবেড়া ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গী সড়কের পাশে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলা আজিমনগর ইউপির যুবলীগ সভাপতি মামুন শিকদারের এসব ট্রলিতে আগুন দেওয়া হয়েছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অভিযানে চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বালি কাটার কাজে ব্যবহৃত একটি এক্সকেভেটর (বেকু) মেশিন জব্দ করেন ও বালি টানার দায়ে চারজন চালককে আটক করেন।

আটকরা হলেন জয় শেখ, অহিদ শেখ, জাহিদ শেখ ও জাহিদ হাওলাদার। 

উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা রকিবুর রহমান জানান, বালু ব্যবস্থাপনা আইনে জনবিরোধী কার্যকলাপের দায়ে বালিয়াডাঙ্গি সড়কের পাশে থেকে অসাধু বালু ব্যবসায়ীরা বালু উত্তোলন করে রাস্তার ক্ষতি করছিল। এ জন্য অভিযান পরিচালনা করা হয়।

“আটককৃতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা হবে।”

আজিমনগর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি মামুন শিকদার বলেন, “আমি কাজী জাফরউল্লার (আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য) সমর্থনে নৌকার দল করে আজিমনগর ইউনিয়নের যুবলীগের সভাপতি-এটা করাই আমার অপরাধ।

“সেজন্য পূর্ব শত্রুতার জের ধরে স্বতন্ত্র এমপি নিক্সন চৌধুরীর সমর্থক মোতালেব চেয়ারম্যানের নির্দেশে তার লোকজন আমার ৫০ লাখ টাকার তিনটি গাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে।”

আজিমনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোতালেব মাতুব্বর বলেন, “ঘটনাআমার ইউনিয়নে না, কাউলিবেড়া ইউনিয়নে।

“এটা ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষয় সরকারি রাস্তা ক্ষতির জন্য করেছে আমি কিছু জানি না। মামুন আমার ভাইয়ের ভাটায় কর্মচারী ছিল। ভাইয়ের লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেছে। সে আমার পতিপক্ষ হয় কীভাবে?”


ট্যাগ:  ফরিদপুর জেলা  ঢাকা বিভাগ