টঙ্গীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বহু মামলার আসামি নিহত

  • গাজীপুর প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-05-23 00:37:35 BdST

bdnews24

টঙ্গীতে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত গোলাগুলিতে হত্যা, ডাকাতি, মাদকসহ অন্তত ‘দেড় ডজন’ মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার রাতে টঙ্গী বাজারের পাশে সেনাকল্যাণ ভবন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে র‌্যাব-১-এর কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান।

নিহত শামীম হোসেন ওরফে হাসান (৩০) টঙ্গীর মাজারবস্তি এলাকার রুহল আমিনের ছেলে। তাদের গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর জেলায়।

র‌্যাব কর্মকর্তা মামুন বলেন, রাত সোয়া ৮টার দিকে র‌্যাব-১-এর সদস্যরা খবর পান একদল ‘মাদক ব্যবসায়ী ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী’ টঙ্গী বাজারের পাশে সেনাকল্যাণ ভবনের কাছে মাজারবস্তি এলাকায় অবস্থান করছে।

“রাত সাড়ে ৮টার দিকে র‌্যাবের টহল দল সেখানে অভিযানে যায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালানোর চেষ্টা করে। আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে এক ‘সন্ত্রাসী’ গুলিবিদ্ধ হয়ে পড়ে যান; অন্যরা পালিয়ে যান।”

মামুন বলেন, তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে দুইটি বিদেশি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলিসহ ৮০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়েছে বলেও এই র‌্যাব কর্মকর্তা জানান।

মামুন আরও বলেন, “তাৎক্ষণিকভাবে টঙ্গী থানায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে নিহত এই সন্ত্রাসী হাসান গাজীপুরের টঙ্গী এবং রাজধানীর বনানী থানার ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ আসামি। তার বিরুদ্ধে মাদক, হত্যা, অস্ত্র, ডাকাতি, পুলিশ এসল্টসহ ১৮টির মতো মামলা রয়েছে।”

হাসান ও তার দল টঙ্গী, উত্তরা ও বনানী এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করত বলে জানা গেছে, বলেন মামুন।


ট্যাগ:  গাজীপুর জেলা  ঢাকা বিভাগ