সিনহা হত্যা: র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তারদের অপহরণের অভিযোগে মামলা

  • কক্সবাজার প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-11 22:22:43 BdST

bdnews24
টেকনাফের এই তিন ব্যক্তিকে অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছে র‌্যাব, তবে গত রাতে তাদের অপহরণ করা হয়েছে বলে থানায় মামলায় করেছেন একজনের মা।

অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যায় জড়িত অভিযোগে র‌্যাব টেকনাফের যে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে, তাদের একজনের মা ছেলেকে অপহরণের অভিযোগে থানায় মামলা করেছেন।

টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের মারিশবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা মো. নুরুল আমিন, মো. নেজামুদ্দিন ও মোহাম্মদ আয়াজকে মঙ্গলবার বিকালে কক্সবাজার আদালতে হাজির করে সিনহা হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখায় র‌্যাব। তাদের ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করা হয়েছে, যার শুনানি হবে বুধবার।

এর আগে সকালে নুরুল আমিনকে অপহরণের অভিযোগে টেকনাফ থানায় মামলা হয় বলে ওসি মো. আবুল ফয়সল জানিয়েছেন।

নুরুল আমিনসহ তিনজনকে র‌্যাবের অভিযানে গ্রেপ্তারের বিষয়টি বিকালে তাদের আদালতে হাজির করার আগে পুলিশ ‘জানত না’ বলে জানিয়েছেন পরিদর্শক ফয়সল।

সিনহা হত্যা: পুলিশের মামলার ৩ সাক্ষী গ্রেপ্তার  

নুরুল আমিন মারিশবুনিয়া এলাকার নাজিম উদ্দিনের ছেলে। নুরুলসহ র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার তিনজনই সিনহা রাশেদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা দুটি মামলার সাক্ষী বলে পরিদর্শক আবুল ফয়সল জানান।

তিনি বলেন, সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মারিশবুনিয়া এলাকা থেকে নুরুল আমিনসহ তিনজনকে বাড়ি থেকে অজ্ঞাত একদল লোক জোরপূর্বক মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। স্বজনরা বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করলে রাতেই থানায় জিডি নথিভুক্ত করা হয়।

পরে রাত ৩টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান পুলিশ কর্মকর্তারা। ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় মঙ্গলবার সকালে নুরুল আমিনের মা খালেদা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।