প্রতিবেদন সরাতে চাপ গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ: বাগেরহাট প্রেসক্লাব

  • বাগেরহাট প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-02-21 23:22:19 BdST

bdnews24

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে প্রকাশিত পুরনো প্রতিবেদন মুছে ফেলার জন্য প্রভাবশালী মহলের ‘অনৈতিক’ চাপ প্রয়োগের ঘটনায় ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছে বাগেরহাট প্রেসক্লাব।

রোববার বাগেরহাট প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সভাপতি নীহার রঞ্জন সাহা ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাকি তালুকদার স্বাক্ষরিত এক যৌথ বিবৃতিতে এ ঘটনাকে ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়।

বিবৃতিতে তারা বলেন, “এই গণমাধ্যমটি (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম) সংবাদপত্রের নীতিমালা মেনে শুরু থেকেই সংবাদ প্রকাশ করে আসছে। কয়েক বছর আগে বিডিনিউজে প্রকাশিত প্রতিবেদন মুছে ফেলতে সম্প্রতি একটি প্রভাবশালী মহল অযাচিত হস্তক্ষেপ করছে, যা স্বাধীন মত প্রকাশে প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

“সংবাদপত্র সমাজের নানা অসঙ্গতি তুলে ধরবে এটাই তার কাজ। এই মত প্রকাশে যদি বাধা আসে সেটা সমাজ বা রাষ্ট্রের জন্য অশনি সংকেত।”

চাপে নত হব না: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের প্রধান সম্পাদক 

সংবাদমাধ্যমের কণ্ঠরোধের চেষ্টা: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের বিবৃতি 

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী গত বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের ওই চাপের বিষয়টি সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রিমিয়ার গ্রুপ অব কোম্পানিজের চেয়ারম্যান সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. এইচ বি এম ইকবালের বিরুদ্ধে গত দেড় দশকে বিভিন্ন সময়ে যেসব মামলা হয়েছে, তার কার্যক্রম আর আদালতের আদেশ নিয়ে অন্য সব সংবাদমাধ্যমের মত বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমেও প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

সেসব মামলা থেকে তারা অব্যাহতিও পেয়েছেন। এখন, এতদিন পর, সেসব পুরনো খবর মুছে ফেলতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে চাপ দেওয়া হচ্ছে।

দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ইতোমধ্যে তিন ডজনের বেশি উকিল নোটিস পাঠানো হয়েছে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জ্যেষ্ঠ চার সম্পাদকের নামে। সেখানে বলা হচ্ছে, ওই সব প্রতিবেদন ‘ডিলিট’ না করলে মামলা করা হবে। মামলা হবে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন আর মানহানির অভিযোগে।

চাপের কাছে নতি স্বীকার না করার প্রত্যয় জানিয়ে তৌফিক ইমরোজ খালিদী বলেন, “বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের নিজস্ব কোনো অনুসন্ধান এসব প্রতিবেদনে নেই; সম্পূর্ণভাবে মামলার কার্যক্রম ও আদালতের আদেশই সেখানে বস্তুনিষ্ঠভাবে প্রতিফলিত হয়েছে। তাহলে কোন যুক্তিতে একটি সংবাদমাধ্যম এসব প্রতিবেদন সরিয়ে ফেলবে?”

বাগেরহাট প্রেসক্লাবের বিবৃতিতে বলা হয়, “চোখ রাঙানি আর হুমকি ধামকি দিয়ে গণমাধ্যমের কণ্ঠরোধ করা যায় না। বিডিনিউজসহ দেশের সকল গণমাধ্যম সমাজের নানা অসঙ্গতি এখন যেমন তুলে ধরছে, আগামীতেও ধরবে। বিডিনিউজের প্রধান সম্পাদকসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলার যে হুমকি দেওয়া হয়েছে তা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা উপর নগ্ন হস্তক্ষেপ।

“স্বাধীন গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে সংবাদ প্রকাশে প্রভাবশালী মহল বিডিনিউজের বিরুদ্ধে যে ঘৃণ্য অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে আমরা তাতে তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি। বর্তমান সরকার ওই প্রভাবশালীদের ঘৃণ্য অপচেষ্টাকে প্রতিহত করবে সেই দাবি জানাচ্ছি।”

 

আরও পড়ুন

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের ওপর ‘অনৈতিক’ চাপ নিয়ে ডিইউজের উদ্বেগ  

প্রতিবেদন সরাতে চাপ গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ: সিইউজে  

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরকে ‘অনৈতিক’ চাপ প্রয়োগের প্রতিবাদ বিজেএসসির  

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরকে ‘অনৈতিক’ চাপ প্রয়োগের প্রতিবাদ তিন বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাবের  

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরের উপর চাপ গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য হুমকি: ডুজা  

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরকে ‘অনৈতিক’ চাপ, চাঁদপুরের সাংবাদিকদের প্রতিবাদ