আবু ত্ব-হাকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • গাজীপুর প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-16 21:51:17 BdST

bdnews24

ইসলামী বক্তা হিসেবে পরিচিত রংপুরের নিখোঁজ আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনানকে উদ্ধারে পুলিশ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

বুধবার গাজীপুরের কালিয়াকৈরের সফিপুরে বাংলাদেশ আনসার ভিডিপি একাডেমিতে এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, “আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনান নিখোঁজের কথা শুনেছি। তিনি কোথায় কীভাবে আছেন, পুলিশ অনুসন্ধান করছে। তাকে উদ্ধারের সর্বোচ্চ চেষ্টা চলছে। আমরা অবশ্যই এর ক্লু উদ্ধার করব।”

‘ঢাকার পথে নিখোঁজ’ রংপুরের যুবক, থানায় জিডি

আবু ত্ব-হা মোহাম্মদ আদনানের খোঁজে সরকারি দপ্তরে ঘুরছেন তার স্ত্রী  

গত ৮ জুন রংপুর থেকে একটি ব্যক্তিগত গাড়িতে (ঢাকা মেট্রো গ ৩৩-৪৩৪২) ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে তিন সঙ্গীসহ নিখোঁজ হন আদনান।

আদনানের পারিবারিক বাড়ি রংপুর নগরীর সেন্ট্রাল রোডের আহলে হাদিস মসজিদ এলাকায়। তবে তিনি প্রথম স্ত্রী হাবিবা নূর, দেড় বছরের ছেলে ও তিন বছরের মেয়েকে নিয়ে শালবন মিস্ত্রীপাড়া চেয়ারম্যান গলিতে ভাড়া বাসায় থাকেন।

আদনানের মা আজেদা বেগম শুক্রবার (১১ জুন) বিকালে ছেলের সন্ধান চেয়ে রংপুর কোতোয়ালি থানায় জিডি করেছেন।

আনসার ভিডিপি একাডেমিতে ২১তম ব্যাচ (পুরুষ) নবীন ও ব্যাটালিয়ান আনসারদের ছয় মাসের মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, “যারাই আইন মানবে না, যারাই আইন ভঙ্গ করবে তা রিসোর্টে হোক আর ক্লাবে হোক যেখানেই আইন ভঙ্গ হবে সেখানেই আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসছে এবং আনবে।”

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সংক্রামক রোগ সংক্রান্ত আইনের বিষয়টা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যেভাবে নির্দেশনা দেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী- পুলিশ-বিজিবি, আনসার সেভাবেই দায়িত্ব পালন করছে।

এর আগে মন্ত্রী সোয়া সকাল ১০টায় প্রশিক্ষণ একাডেমিতে পৌঁছালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দিন, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম তাকে অভ্যর্থনা জানান।

পরে মন্ত্রী একটি খোলা গাড়িতে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন করেন এবং প্রশিক্ষণার্থীদের উদ্দেশে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন।

প্রশিক্ষণলদ্ধ জ্ঞান, মেধা, শ্রম ও দক্ষতা কাজে লাগিয়ে প্রশিক্ষণার্থীরা বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীকে অনন্য উচ্চতায় এগিয়ে নিবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।  

মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ থেকে বাহিনীর সুনাম এবং ভাবমূর্তি অক্ষুণ্ন রাখতে নিজেদের উপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য সঠিকভাবে পালন করে তারা দেশ এবং জাতির সার্বিক উন্নয়নে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে সক্ষম হবেন বলেও মন্ত্রী প্রত্যাশা করেন।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কৃতী ও চৌকস প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করেন।

মৌলিক প্রশিক্ষণে সজীব মন্ডল শ্রেষ্ঠ ড্রিল, মো. মহিউদ্দিন ফাহিম শ্রেষ্ঠ ফায়ারার এবং রাকিব আকন্দ চৌকস প্রশিক্ষণার্থী ব্যাটালিয়ন আনসার হিসেবে প্রথম স্থান অধিকার করেন।

এবার ৯৭৯ জন নবনিযুক্ত ব্যাটালিয়ন আনসার ছয় মাস মেয়াদী মৌলিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন।