খুলনা সদর হাসপাতালেও হচ্ছে ‘করোনা ইউনিট’

  • খুলনা প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-17 17:42:57 BdST

bdnews24

খুলনা বিভাগে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধির মুখে খুলনা সদর হাসপাতালেও এ রোগের চিকিৎসার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ৩০টি শয্যা বাড়ানোর পাশাপাশি সদর হাসপাতালে এ চিকিৎসা সম্প্রসারণের এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র কাজী আবু রাশেদ জানান, আগামী রোববার থেকে সেখানে রোগী ভর্তি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, “বুধবার থেকে হাসপাতালে সাধারণ রোগীদের ভর্তি বন্ধ করা হয়েছে। আগে যারা ভর্তি ছিলেন তাদেরও ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে। আর একটু জটিল রোগীদের পাঠানো হচ্ছে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।”

তিনি জানান, এ হাসপাতালের দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় করোনা আক্রান্ত রোগী ভর্তি করা হবে। এটি ৭০ শয্যার আলাদা করোনা হাসপাতাল হবে। এ হাসপাতালের যেসব চিকিৎসক রয়েছেন তারা পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করবেন। এছাড়া অতিরিক্ত আটজন চিকিৎসকও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

শ্বাসকষ্টের রোগীদের হাসপাতাল থেকেই অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে। তবে কোনো রোগীর আইসিইউ প্রয়োজন হলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিটে পাঠানো হবে বলেন তিনি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার দুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তারের পরিচালক রাশেদা সুলতানা বলেন, এ বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে খুলনা ও কুষ্টিয়া জেলায় চারজন করে, যশোরে তিনজন, চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরে দুজন করে, বাগেরহাট, মাগুরা এবং ঝিনাইদহে একজন করে রয়েছে।

এ সময়ে ৭৬৫ জনের শরীরে এ রোগ শনাক্ত হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ২৮১ জন বলেন তিনি।

খুলনা সিভিল সার্জন নিয়াজ মোহাম্মদ বলেন, সচেতনতার অভাব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে খুলনায় করোনার পরিস্থিতি ভয়াবহের দিকে যাচ্ছে।

বর্তমানে এ রোগীর চাপ সামলাতে জেলা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্তে সদর হাসপাতালকে করোনা হাসপাতাল হিসেবে প্রস্তুত করা হচ্ছে।

সিভিল সার্জন জানান, গত বছরও ওই হাসপাতালে করোনা ইউনিট করার জন্য অক্সিজেন প্ল্যান্ট বসানো হয়েছিল। ১২টি আইসিইউ শয্যাও প্রস্তুত করা হয় কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রভাব কমে যাওয়ায় তা বাতিল হয়ে যায়।