২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫

খাগড়াছড়িতে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৭ দগ্ধ

  • রাঙামাটি প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-02-19 22:35:00 BdST

bdnews24

খাগড়াছড়ি শহরের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে এক নারীসহ সাতজন দগ্ধ হয়েছেন।

মঙ্গলবার ভোরে খবংপুড়িয়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে বলে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ জানিয়েছে।

দগ্ধ হয়েছেন ভূবন বিকাশ চাকমা (৫০), আব্দুল হামিদ (২৩), মো. জমির (২২), মাহমুদ উল্লা (২৬), নিউটন চাকমা (২৫), মহিরঞ্জন চাকমা (৪৬) ও তার স্ত্রী মিনতি চাকমা (৩৬)।

এদের মধ্যে চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি তিনজনকে খাগড়াছড়ি আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

খাগড়াছড়ি ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স স্টেশন অফিসার আব্দুল কাদের বলেন, ভোর সাড়ে ৪টার দিকে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে যান। 

সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক নয়নময় ত্রিপুরা বলেন, গুরুতর আহত চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে রেফার করা হয়েছে। অপর তিনজনকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে সদর থানার ওসি সাহাদাত হোসেন বলেন, গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানটির মালিক দক্ষিণ খবংপুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা ক্যান্টন চাকমা। তিনি বিএম এনার্জি বিডি লিমিটেডের পরিবেশক; সেই হিসেবে গ্যাস সিলিন্ডার বিপপণনে জড়িত।

সাহাদাত জানান, বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। কোনো অনিয়মের ঘটনা ছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ওই এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক দোকানদার বলেন, ওই দোকানে গ্যাসের সিলিন্ডার মজুদ রাখা হতো। কয়েকদিন ধরে গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। বিষয়টি দোকান মালিককে জানালেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

জেলা সদরের খবংপুড়িয়া গ্রামের ইয়ংস্টার ক্লাবের সামনে ভাড়া দোকানের একটিতে রাতে মহিরঞ্জন চাকমা ও তার স্ত্রী মিনতি চাকমা থাকতেন।

বাঙালি তিনজনের বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে। আহত পাঁচজনই রাতে ওই গ্যাস সিলিন্ডারের দোকানে ছিলেন।

বিস্ফোরণের ঘটনায় দোকানঘর, পাশের একটি বসতবাড়ি বিধ্বস্ত হয় এবং ইয়ংস্টার ক্লাবের একাংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।


ট্যাগ:  চট্টগ্রাম বিভাগ  খাগড়াছড়ি জেলা  রাঙামাটি জেলা