শিক্ষার্থীকে ধাক্কা, রাইদার বাস আটকে রাখল সহপাঠীরা  

ঢাকার রামপুরায় এক শিক্ষার্থীকে একটি বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগে রাইদা পরিবহনটির ৪০টি বাস দুই ঘণ্টা আটকে রেখেছিল তার সহপাঠীরা।

ঢাকা ইম্পিরিয়াল কলেজের শিক্ষার্থীরা সোমবার দুপুরে রাইদা পরিবহনের বাসগুলো বিটিভি ভবনের সামনে সড়কের আটকে রাখে।

পুলিশ ও মালিকপক্ষের উপস্থিতিতে সমঝোতায় শিক্ষার্থীরা বাসগুলো ছেড়ে দেয় বলে রামপুরা থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “দুপুরের ইম্পিরিয়াল কলেজের এক ছাত্রী মুগদা থেকে রাইদার একটি বাসে করে রামপুরা এলাকায় তার বাসায় ফিরছিলেন। বাস থেকে নামার সময় তার সাথে গাড়ির কন্ডাক্টর-হেলপারের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। ওই ছাত্রী নামার সময় তাকে বাস থেকে ধাক্কা দিয়েছে বলে সহপাঠীদের জানায়।

“পরে ৩০ থেকে ৪০ জন শিক্ষার্থী রাইদা পরিবহনের এক এক করে ৪০টি বাস আটকে সড়কের পাশে দাঁড় করিয়ে রাখে।”

পরে বাস মালিক ও শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিদের থানায় নিয়ে সমঝোতা করে দেওয়া হলে শিক্ষার্থীরা বাসগুরো ছেড়ে দেয় বলে জানান তিনি।

এর আগে গত ১৫ নভেম্বর রাইদা পরিবহনের একটি বাসের এক কর্মী আরেক শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। তখনও রাইদা পরিবহনের ৫০টি বাস আটকে রেখেছিল শিক্ষার্থীরা।

যমুনা পার্কের সামনে চলন্ত বাস থেকে নামতে গিয়েই শিশুটির মৃত্যু: র‌্যাব