জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে ঢাকায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও শহীদদের নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাময়িক বরখাস্ত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে এবার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা হয়েছে।

ঢাকা আইনজীবী সমিতির সদস্য মোহাম্মদ ওমর ফারুক আসিফ সোমবার এ মামলা দায়ের করেন। মোট পাঁচজনকে সেখানে সাক্ষী করা হয়েছে।

ডিজিটাল মাধ্যমে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, জাতির পিতা সম্পর্কে ‘ঔদ্ধত্যপূর্ণ, ঘৃণ্য, অসত্য প্রপাগান্ডা’ চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে আর্জিতে। 

সেখানে বলা হয়েছে, স্বাধীন বাংলার স্থপতি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সম্পর্কে ‘অপপ্রচার’ করেছেন জাহাঙ্গীর, যা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২১ ধারার অপরাধ।

আগামী ৬ জানুয়ারির মধ্যে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ- সিআইডিকে এসব অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল।

মামলার বাদী আইনজীবী ওমর ফারুক আসিফ বলেন, ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন তার জবানবন্দি নিয়ে, বক্তব্য শোনার পর এ আদেশ দেন।

বঙ্গবন্ধু এবং মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে এর আগে গাজীপুর, রাজবাড়ী, মাদারীপুর এবং পঞ্চগড়েও জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এ বছর সেপ্টেম্বরে তার কথোপকথনের একটি অডিও ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে মুক্তিযুদ্ধের ৩০ লাখ শহীদ এবং বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা নিয়ে মন্তব্য করতে শোনা যায়।

ওই ঘটনায় গত ১৯ নভেম্বর জাহাঙ্গীর আলমকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর তাকে মেয়র পদ থেকেও সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

‘জনগণের স্বার্থ পরিপন্থি কাজ, ক্ষমতার অপব্যবহার, সরকারি সম্পদ আত্মসাতের’ মত অভিযোগ তদন্তের জন্য জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী।

আরও পড়ুন:

জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে এবার মামলা হলো গাজীপুরে  

জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা এবার পঞ্চগড়ে  

বঙ্গবন্ধুকে কটূক্তি: মাদারীপুরে জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা  

বঙ্গবন্ধুকে কটূক্তি: গাজীপুরের মেয়রের বিরুদ্ধে মামলা রাজবাড়ীতে  

যেসব অভিযোগে বরখাস্ত হলেন মেয়র জাহাঙ্গীর  

গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার