পাকিস্তানের বিশ্বকাপ দল পছন্দ হয়নি আফ্রিদির

ফাইল ছবি
কিছু নাম কেন আছে ব্যাখ্যা খুঁজে পাচ্ছেন না শহিদ আফ্রিদি। কয়েক জন কোন হিসেবে বাদ পড়ে গেল তাও বুঝতে পারছেন না। সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পাকিস্তান দল পছন্দ হয়নি সাবেক এই অধিনায়কের। তার ধারণা, টুর্নামেন্টের আগে পরিবর্তন আসতে পারে দলে।

শোয়েব মালিক ও সরফরাজ আহমেদের মতো অভিজ্ঞদের জায়গা হয়নি দলে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে জায়গা করে নিতে লড়াই করছেন এমন কয়েক জন আছেন দলে। বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে অভিজ্ঞদের এই উপেক্ষা মানতে পারছেন না আফ্রিদি।

ক্রিকেট পাকিস্তানকে এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, এখনও সুযোগ থাকায় দলে পরিবর্তন আশা করছেন তিনি। 

“আমি দল নির্বাচন নিয়ে অবশ্যই বিস্মিত।  দুই-তিনজন ক্রিকেটারের অন্তর্ভুক্তির কারণ খুঁজে পাচ্ছি না। কীভাবে আমরা কয়েকটি নাম দল থেকে বাদ দিয়েছি, এটাও বুঝতে পারছি না।”

“আমি কিছু তথ্য পেয়েছি। খুব সম্ভবত কিছু পরিবর্তনসহ আসছে বিশ্বকাপের জন্য পিসিবি আরেকটি দল ঘোষণা করবে।”

এরই মধ্যে সব দেশই তাদের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করেছে। প্রয়োজনে দলে পরিবর্তন আনার সুযোগ রেখেছে আইসিসি। যার শেষ সময় আগামী ১০ অক্টোবর। চলতি সপ্তাহের শুরুতে দলে বদল আসার ইঙ্গিত দেন পিসিবির প্রধান নির্বাচক মোহাম্মদ ওয়াসিম।

“বিশেষ পরিস্থিতি ও ব্যতিক্রমী কারণে যদি দরকার হয় আমরা প্রয়োজনীয় পরিবর্তন করতে পারি।”

বিশ্বকাপ দল ঘোষণার দিন হুট করেই পাকিস্তানের প্রধান কোচের দায়িত্ব ছেড়ে দেন মিসবাহ-উল-হক। তাকে অনুসরণ করে পদত্যাগ করেন বোলিং কোচ ওয়াকার ইউনিসও।

আফ্রিদি জানালেন, বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে তাদের এই সিদ্ধান্ত পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য বড় আঘাত।

“এই স্বল্প সময়ে ম্যাথু হেইডেন ও ভার্নন ফিল্যান্ডার খুব বেশি প্রভাব ফেলতে পারবেন বলে আমার মনে হয় না। তারা (মিসবাহ ও ওয়াকার) যদি স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করে, তাহলে তারা পাকিস্তান ক্রিকেটকে গুরুতরভাবে আঘাত করেছে। বিশ্বকাপ শেষ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা উচিত ছিল।”

আগামী ২৪ অক্টোবর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ অভিযান।

পাকিস্তান দল: বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), আসিফ আলি, সোয়াইব মাকসুদ, আজম খান (উইকেটরক্ষক), খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, হাসান আলি, ইমাদ ওয়াসিম, মোহাম্মদ হাসনাইন।

রিজার্ভ: উসমান কাদির, শাহনাওয়াজ দাহানি, ফখর জামান।