র‍্যাঙ্কিংয়ে পাঁচে হেড, ৬৮ ধাপ এগোলেন পিটারসেন

অস্ট্রেলিয়ার ট্রাভিস হেড (বাঁয়ে) ও দক্ষিণ আফ্রিকার কিগান পিটারসেন
অ্যাশেজ সিরিজের শেষ টেস্টে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেলেন ট্রাভিস হেড। প্রথমবারের মতো আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ পাঁচে জায়গা করে নিলেন এই অস্ট্রেলিয়ান।

বড় লাফ দিয়েছেন ভারতের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার সিরিজ জয়ের নায়কদের একজন কিগান পিটারসেন। তিনি এগিয়েছেন ৬৮ ধাপ।

অ্যাশেজের পঞ্চম টেস্ট ও দক্ষিণ আফ্রিকা-ভারতের তৃতীয় টেস্টের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে বুধবার টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ের হালনাগাদ প্রকাশ করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্তা সংস্থা-আইসিসি।

কোভিড থেকে সেরে উঠে হোবার্টে পঞ্চম টেস্টে ফিরেই প্রথম ইনিংসে চাপের মধ্যে ১০১ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন হেড। চার ম্যাচে ৩৫৭ রান করে অস্ট্রেলিয়ার ৪-০ ব্যবধানে জেতা সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনিই। ম্যাচ সেরার সঙ্গে জিতে নেন সিরিজ সেরার পুরস্কার।

২৮ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার র‍্যাঙ্কিংয়ে সাত ধাপ এগিয়ে ভারতের রোহিত শর্মার সঙ্গে যৌথভাবে পাঁচ নম্বরে আছেন। গত মাসেই আগের সেরা অবস্থানে উঠেছিলেন তিনি, ১০ নম্বরে।

অস্ট্রেলিয়ার ১৪৬ রানে জেতা ওই ম্যাচের আরেক নায়ক ক্যামেরুন গ্রিন ২৩ ধাপ এগিয়ে যৌথভাবে ৬৬তম স্থানে আছে। দুই ইনিংসে তিনি করেন যথাক্রমে ৭৪ ও ২৩ রান।

প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে ২৭ রান করা স্টিভেন স্মিথ এক ধাপ পিছিয়ে চারে নেমে গেছেন। এই সুযোগে কোনো ম্যাচ না খেলেও তিন নম্বরে উঠেছেন নিউ জিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

পিটারসেন ৬৮ ধাপ এগিয়ে ৩৩তম স্থানে উঠেছেন। সিরিজ নির্ধারণী তৃতীয় টেস্ট জয়ে তিনি খেলেন ৭২ ও ৮২ রানের দারুণ দুটি ইনিংস। সিরিজ শুরুর আগে র‍্যাঙ্কিংয়ে তিনি ছিলেন ১৫৮তম স্থানে। ২৭৬ রান করে সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হওয়ার পাশাপাশি র‍্যাঙ্কিংয়েও তিনি এগোলেন অনেক।

দক্ষিণ আফ্রিকার অন্য ব্যাটসম্যানদের মধ্যে টেম্বা বাভুমা সাত ধাপ এগিয়ে ২৮তম, রাসি ফন ডার ডাসেন ১২ ধাপ এগিয়ে ৪৩তম স্থানে আছেন।

ভারতের বিরাট কোহলি দুই ধাপ এগিয়ে সাত নম্বরে আছেন। অধিনায়ক হিসেবে শেষ টেস্টে দুই ইনিংসে তিনি করেন ৭৯ ও ২৯ রান। দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণ এক সেঞ্চুরি করা কিপার-ব্যাটসম্যান রিশাভ পান্ত ১০ ধাপ এগিয়ে ১৪তম স্থানে আছেন।

বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার কাগিসো রাবাদা দুই ধাপ এগিয়ে তিনে উঠেছেন। ভারতের ফাস্ট বোলার জাসপ্রিত বুমরাহ ফিরেছেন শীর্ষে দশে।

দুই ধাপ এগিয়ে দ্বাদশ স্থানে আছেন স্টুয়ার্ট ব্রড। ইংলিশ এই পেসার শেষ ম্যাচে নেন ৬ উইকেট। সাত ধাপ এগিয়ে ৩১তম স্থানে আছেন আরেক পেসার মার্ক উড।

বোলারদের মধ্যে শীর্ষে আছেন যথারীতি অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। আর ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন তার স্বদেশি মার্নাস লাবুশেন।

ওয়ানডে

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ডের শেষ দুই ওয়ানডে এবং শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের প্রথম দুই ওয়ানডের পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে এই সংস্করণের র‍্যাঙ্কিংও হালনাগাদ করা হয়েছে।

পরপর দুই ম্যাচে ৪ উইকেট করে নিয়ে আয়ারল্যান্ডের সিরিজ জয়ে বড় ভূমিকা রাখা অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন বোলারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন ১৭ ধাপ। এই অফ স্পিনার আছেন ১০ নম্বরে।

ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে জিম্বাবুয়ের শন উইলিয়ামস আট ধাপ এগিয়ে ৪০তম স্থানে আছেন। প্রথম দুই ম্যাচে তিনি করেন ১০০ ও ৪০ রান। ৭১ ও ২৩ রান করা শ্রীলঙ্কার চারিথ আসালাঙ্কা ১৬ ধাপ এগিয়ে ৫২তম স্থানে আছেন।