নুসরাত ও যশকে নিয়ে আবারও গুজব

পুরান একটি ভিডিও নতুন করে ‘ভাইরাল’। নুসরাত ও যশ’কে নিয়ে আবারও গুঞ্জন।

কলকাতার অভিনেত্রী ত্রিণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান ও অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত’র মধ্যে সম্পর্কের গুঞ্জনের আগুনে ঘি ঢেলেছে পুরান একটি ভিডিও।

চার সপ্তাহের আগের এই ভিডিওতে দেখা যায়, কলকাতার দক্ষিণেশ্বর কালি মন্দিরে পশ্চিম বাংলার প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রের সঙ্গে কথা বলছেন নুসরাত। তার পাশেই দাঁড়িয়ে আছেন যশ।

আর ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আরও বেশি ছড়িয়ে পড়ার কারণ হল, নুসরাত সম্প্রতি একটি স্বাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তিনি এখন আর স্বামী নিখিল জৈনের সঙ্গে থাকছেন না।

ধারণা করা হয়, গত বছর ‘এসওএস কলকাতা’ ছবিতে কাজ করতে গিয়েই এই দুই শিল্পীর মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর সে কারণেই নুসরাতের স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি।

তবে গুজব যাই হোক, সেটাতে কিছুটা হলেও পানি ঢেলেছেন যশ।

কলকাতা টাইমস’কে যশ বলেন, “এটা একটা পুরান ভিডিও। ডিসেম্বর মাসের। পুরান ভিডিও আর ছবি খুঁড়ে নতুন গল্প রান্না করা, অতিরিক্ত খোটানো হচ্ছে আমাদের নিয়ে।”

‘এসওএস কলকাতা’ ছবির প্রচারণার অংশ হিসেবে ইন্সটাগ্রামে যশের সঙ্গে ছবিও দিয়েছিলেন নুসরাত। সেটা নিয়েও গুজব রটেছিল বেশ।

৮ জানুয়ারি জন্মদিন উপলক্ষ্যে কলকাতা টাইমস’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নুসরাত বলেন, “আমার ব্যক্তিগত জীবন সর্বসাধারণের জন্য নয়।”

তবে নতুন বছরের শুরুতে নুসরাত ও যশকে দেখা গিয়েছিল রাজস্থানে। শুটিং নয়, বেড়াতেই গিয়েছিলেন তারা।

বিষয়টা অস্বীকার না করলেও এই ব্যাপারে নুসরাত বলেন, “আমি দারুণ কয়েকটা দিন কাটিয়ে এসেছি। এখনও আমার মাঝে সেই অনুভূতি মিশে আছে।”

আর এই বেড়াতে যাওয়া নিয়ে মন্তব্য করতে বললে, যশ সংবাদমাধ্যমের কাছে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়েছেন, “লোকে কি রাজস্থান যেতে পারে না নাকি?”

২০১৯ সালের জুন মাসে নিখিল ও নুসরাত গাঁটছড়া বাঁধেন। তুরস্কে আয়োজিত ছোট পরিসরের সেই বিয়ের আসরে কাছের বন্ধু ও আত্মিয়রা উপস্থিত ছিলেন। পরে কলকাতায় আয়োজন করা হয় তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠান।