তাপ থেকে চুলের ক্ষতি সারানোর পন্থা

ছবি: রয়টার্স।
বিভিন্ন ধরনের তাপীয় যন্ত্র ব্যবহারে চুলের ক্ষতি হয়। আর সেটা সারানোর রয়েছে উপায়।

চুলে বিভিন্ন ধরনের স্টাইল করতে গিয়ে নানান ধরনের বৈদ্যুতিক তাপীয় যন্ত্র ব্যবহার করা হয়।  এই ধরনের যন্ত্র বেশি ব্যবহারে চুলে ক্ষতি হওয়াই স্বাভাবিক।

তাপ প্রয়োগ থেকে চুলকে সুরক্ষিত রাখতে কার্যকর কয়েকটি পদক্ষেপ সম্পর্কে জানানো হল ফেমিনা ডট ইন’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে।

ক্ষতি হওয়া চুলের লক্ষণ

আগা ফাটা, শুষ্কতা, রুক্ষভাব, চুল ভেঙে পড়া, জট পড়া, অতিরিক্ত চুল পড়া ইত্যাদি।

তাপ থেকে সুরক্ষিত থাকার উপায়

‘হিট প্রটেকটর’ ব্যবহার: চুলকে তাপ থেকে বাঁচাতে ‘হিট প্রটেকশন’ ব্যবহার করা উচিত। এটা চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখে এবং শুষ্কতার হাত থেকে বাঁচায়।

এছাড়াও তাপের কারণে হওয়া ক্ষয় হ্রাস করে। বলা যায় চুলকে সহজে উত্তাপ থেকে বাঁচাতে ‘হিট প্রটেকশন’ ব্যবহার করা উচিত।

একই চুলের গোছায় একাধিকবার স্টাইল না করা: একই চুলে বার বার তাপ প্রয়োগ মারাত্মক ক্ষতি সাধন করে। একবার তাপ প্রয়োগই যথেষ্ট। যত বেশি তাপ প্রয়োগ করা হবে তার ক্ষতি তত বেশি গুরুতর হবে।

‘হেয়ার মাস্ক’ ব্যবহার: অতিরিক্ত তাপ প্রয়োগের কারণে চুলের কোমলতা ধরে রাখতে সপ্তাহে কমপক্ষে একবার চুলের মাস্ক ব্যবহার করা উচিত। এতে চুলের জট কমে, মসৃণতা আসে এবং নিয়ন্ত্রণ করা সহজ হয়। এছাড়াও, এই সামান্য পদক্ষেপ গ্রহণ চুলকে দীর্ঘস্থায়ী করতে সহায়তা করে। 

কম তাপ প্রয়োগ: চুলের তাপীয় যন্ত্র কেনার ক্ষেত্রে এমন পণ্য বাছাই করা উচিত যার তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। যন্ত্রের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কখনই প্রয়োগ করা উচিত নয়, এতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ২০০ থেকে ৩০০ ডিগ্রির তাপমত্রা ব্যবহার করা আদর্শ মাপ।

নিয়মিত চুল ছাটা: অতিরিক্ত তাপ চুলের আগা ফাটা সৃষ্টি করে এবং শুষ্ক করে তোলে। নিয়ম করে চুল ছাটা চুলের আগার ফাটার ঝুঁকি কমায় এবং পরে চুল ঝড়ে পড়ার সমস্যা কমে।

সঠিকভাবে চুল পরিষ্কার: মাথার চুল সঠিকভাবে পরিষ্কার করা হলে কোনো প্রসাধনীই ক্ষতি করতে পারবে না। অতিরিক্ত তাপের প্রভাব কমাতে চুল ভালো মতো পরিষ্কার করা ও কন্ডিশনার ব্যবহার করা জরুরি। সালফেট, সিলিকন এবং প্যারাবেন নেই এমন শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহার চুলের জন্য নিরাপদ।

চুলের প্রাকৃতিক গঠন ধরে রাখতে যতটা সম্ভব কম তাপীয় যন্ত্র ব্যবহার করা উচিত। চুলের প্রাকৃতিক পরিচর্যা করা, সাধারণ বাতাসে শুকানো এবং তাপহীন স্টাইল করা- চুলের সুস্থতা বজায় রাখতে সহায়তা করে।

 

আরও পড়ুন

ভেজা চুলে যা করলে ক্ষতি হয়  

কেশ বিপর্যয়ের ১০ কারণ  

রুক্ষ চুলের মাস্ক  

চুলের জন্য ‘মাস্ক’