‘দালালি’ নামটা মুছতে চাই: চুন্নু

মুজিবুল হক চুন্নু। ফাইল ছবি
সংসদে আত্মপরিচয়ের সঙ্কটে থাকা জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, তারা আওয়ামী লীগের ‘দালালি’ ছাড়তে চান।

সংসদে শনিবার ‘মহাসড়ক বিল’ পাসের আলোচনায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এক বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রসিকতাচ্ছলে একথা বলেন তিনি।

বিলের উপর জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব দিয়ে আলোচনায় বিরোধী দলের একাধিক সদস্য সরকারের সমালোচনা করেন। মুজিবুল হকও টঙ্গী-গাজীপুর সড়ক নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

জবাব দিতে গিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শুধু বিরোধিতা না করে সরকারের ভালো কাজের প্রশংসা করারও আহ্বান জানান।

এরপর মুজিবুল হক বলেন, “সরকারের কথা বলতে গিয়ে এমন অবস্থা হয়েছে, মাননীয় স্পিকার, পাবলিক এখন আমাদের আওয়ামী লীগের দালাল বলে।

“আর কত বলব, বলেন। আমরা এখন দালালি নামটা মুছতে চাই। তারপরও যদি আপনাদের মন না ভরে, তাহলে তো কিছু করার নাই।”

আওয়ামী লীগের সাথে প্রেম-ভালোবাসা নেই: জাপা মহাসচিব  

আওয়ামী লীগের সঙ্গে মহাজোট গড়ে সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকায় অবতীর্ণ হওয়া জাতীয় পার্টিকে ‘গৃহপালিত বিরোধী দল’ বলে আসছেন বিএনপির নেতারা।

দেশে বিরল এক দৃষ্টান্তে সংসদে বিরোধী দলের আসনে বসার পাশাপাশি মুজিবুল হকসহ কয়েকজন মন্ত্রীও হয়েছিলেন। তবে বর্তমান মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির কেউ নেই, আর মহাজোটও এখন আর নেই।

এদিন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বলেন, “প্রশংসার কারণে এই সংসদে বিরোধী দলকে চেনাই যাচ্ছে না।”

বিএনপির রুমিন ফারহানা মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে বলেন, “সরকার রূপসী বালিকার মতো শুধু প্রশংসা শুনতে চায়। তারা ভুলে যায় ছয় লাখ কোটি টাকার বাজেট হয়েছে কাজ করার জন্য। এই কাজের জন্য প্রশংসার দরকার নেই।”