ক্রিস্টাল প্যালেসকে উড়িয়ে দুইয়ে সিটি

লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারের অভিযানে মৌসুমের শুরুর দিকের ছন্দহীনতা কাটিয়ে বেশ ভালোভাবে এগিয়ে চলেছে ম্যানচেস্টার সিটি। ক্রিস্টাল প্যালেসকে উড়িয়ে পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে উঠে এসেছে পেপ গুয়ার্দিওলার দল।

নিজেদের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে রোববার ৪-০ গোলে জিতেছে সিটি। জোড়া গোল করেন জন স্টোনস, অন্য দুটি ইলকাই গিনদোয়ান ও রাহিম স্টার্লিংয়ের। লিগে দলটির এটি টানা পঞ্চম ও সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা অষ্টম জয়।

হেডে ম্যানচেস্টার সিটির প্রথম গোলটি করেন জন স্টোনস।

এই জয়ে ১৭ ম্যাচে সিটির পয়েন্ট হলো ৩৫। এক ম্যাচ বেশি খেলে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

ইউনাইটেডের সমান ১৮ ম্যাচে সিটির সমান পয়েন্ট নিয়ে তিনে লেস্টার সিটি। ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে চারে নেমে গেছে গতবারের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল।

ম্যাচের শুরু থেকে অধিকাংশ সময় বলের দখল নিয়ে খেলতে থাকা সিটি লক্ষ্যে নেওয়া প্রথম শটেই পেয়ে যায় জালের দেখা। ২৬তম মিনিটে কেভিন ডে ব্রুইনের গোলমুখে বাড়ানো ক্রসে লাফিয়ে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন স্টোনস। সিটির হয়ে ইংলিশ ডিফেন্ডারের এটি প্রথম গোল।

ইলকাই গিনদোয়ানের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ম্যানচেস্টার সিটি।

দ্বিতীয়ার্ধের একাদশ মিনিটে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে প্রতিপক্ষের পা থেকে বল কেড়ে কোনাকুনি উচু শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন জার্মান মিডফিল্ডার গিনদোয়ান।

প্রতিযোগিতায় আগের ১৭১ ম্যাচে কেবল এক গোল করা স্টোনস ম্যাচে দ্বিতীয় গোলের দেখা পেয়ে যান ৬৮তম মিনিটে। ডিফেন্ডার রুবেন দিয়াসের হেড ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক, কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বল পেয়ে নিচু শটে ব্যবধান বাড়ান স্টোনস।

ম্যাচের শেষ দিকে ফ্রি কিকে বড় ব্যবধানের জয় নিশ্চিত করেন রাহিম স্টার্লিং।

৮৮তম মিনিটে ডি-বক্সের মুখ থেকে দারুণ বাঁকানো ফ্রি কিকে স্কোরলাইন ৪-০ করেন ইংলিশ মিডফিল্ডার স্টার্লিং।

পুরো ম্যাচে লক্ষ্যে কোনো শট রাখতে না পারা ক্রিস্টাল প্যালেস ১৯ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট নিয়ে আছে তালিকার ১৩ নম্বরে।