সিটির বিপক্ষে মেসিকে পাওয়ার আশায় কোচ

হাঁটুর চোট এখনও সেরে না ওঠায় আসছে ম্যাচ থেকে আগেই ছিটকে গেছেন লিওনেল মেসি। তবে ব্যস্ত সূচিতে সামনেই আরও বড় ম্যাচ, প্রতিপক্ষ ম্যানচেস্টার সিটি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এই লড়াইয়ে আর্জেন্টাইন তারকাকে পাওয়ার আশা করছেন পিএসজি কোচ মাওরিসিও পচেত্তিনো।

পাক দি ফ্রাঁসে গত রোববার লিগ ওয়ানে লিঁওর বিপক্ষে পিএসজির ২-১ গোলে জয়ের ম্যাচে বাঁ হাঁটু নিয়ে মেসিকে কিছুটা অস্বস্তিতে ভুগতে দেখা যায়। পরে কোচ উঠিয়ে নেন তাকে। দুদিন পর এমআরআই স্ক্যানে তার হাঁটুতে চোটের আভাস মেলে। ফলশ্রুতিতে সাবেক বার্সেলোনা তারকা খেলতে পারেননি মেসের বিপক্ষে লিগ ম্যাচ।

শুরুতে তার চোট গুরুতর নয় জানানো হলেও প্রত্যাশিত সময়ে সেরে উঠতে পারেননি সাবেক বার্সেলোনা তারকা। এ কারণেই লিগ ওয়ানে শনিবার মোঁপেলিয়ের বিপক্ষে খেলতে পারছেন না তিনি।

বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত একটায় ঘরের মাঠে মোঁপেলিয়ের মুখোমুখি হবে পিএসজি।

আগের দিনের সংবাদ সম্মেলনে পচেত্তিনো আগের মতোই জানান, মেসির চোট ঘিরে তেমন কোনো দুর্ভাবনা নেই। ইউরোপীয় প্রতিযোগিতার ম্যাচে তার ফেরার সম্ভাবনার কথা বলেন তিনি।

“মেসি আজ দৌড়ানো শুরু করেছে…আমরা তার চোটের অবস্থা পর্যালোচনা করব। আশা্ করি, সে (নির্দিষ্ট সময়ের আগে) সুস্থ হয়ে উঠবে।”

“রোববার এ বিষয়ের অগ্রগতি আমরা জানাতে পারব। আশা করি, সবকিছু ঠিকমতো হবে এবং সে দলে ফিরবে।…হ্যাঁ, আমরা আশা করি, সিটির বিপক্ষে সে খেলবে। তবে আমাদের সতর্কতার সঙ্গে এগোতে হবে।”

বার্সেলোনার সঙ্গে ২১ বছরের সম্পর্ক চুকিয়ে গত অগাস্টে মেসি পিএসজিতে যোগ দিলেও এখানে তার শুরুটা আশানুরূপ হয়নি। পরপর দুই ম্যাচে পোস্টে বল লাগায় নতুন ঠিকানায় জালের দেখা এখনও পাননি রেকর্ড ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

মোঁপেলিয়ে ম্যাচের তিন দিন পরই আগামী মঙ্গলবার ঘরের মাঠে সিটির মুখোমুখি হবে পিএসজি। ঠাসা সূচি হলেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ম্যাচের জন্য মোঁপেলিয়ের বিপক্ষে দল সাজাতে কোনো সমস্যা হবে না বলে জানান পচেত্তিনো। 

ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতার গত আসরের সেমি-ফাইনালে লাল কার্ড দেখায় আনহেল দি মারিয়া যেমন সিটির বিপক্ষে ম্যাচেও খেলতে পারবেন না।

“দেখা যাক, কি করা যায়। বেশ কিছু আলাদা আলাদা উপায় ও কৌশল আছে। দেখতে হবে যে কোনো খেলোয়াড় দলকে সঠিক ভারসাম্য দিতে পারে।…চোটে পড়ার আগে মাউরো ইকার্দি দলে অনেক অবদান রেখেছিল। এরপর সুস্থ হয়ে আবার বড় প্রভাব রেখেছে(গত ম্যাচে)। অবশ্যই সে আক্রমণে আমাদের একটা বিকল্প এনে দিয়েছে।”