রিয়ালকে হারাতে ভয়ডরহীন ফুটবল খেলতে হবে: কুমান

করোনাভাইরাসের কারণে মাঠে দর্শক উপস্থিতি নিয়ে যে সীমাবদ্ধতা ছিল, তা উঠে যাচ্ছে। আসছে ক্লাসিকোয় তাই কাম্প নউ ঠাসা থাকবে সমর্থকে। বার্সেলোনাও টানা দুই জয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে শিষ্যদের ভরডরহীন ফুটবল খেলতে বললেন বার্সেলোনা কোচ রোনাল্ড কুমান।

মৌসুমের প্রথম ক্লাসিকোয় রোববার মুখোমুখি হবে দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দল। এ মুহূর্তে লা লিগার টেবিলে ৯ ম্যাচে ২০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে রিয়াল সোসিয়েদাদ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রিয়ালের মতো ৮ ম্যাচে ১৭ করে পয়েন্ট সেভিয়া, আতলেতিকো মাদ্রিদ ও ওসাসুনার। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে আছে বার্সেলোনা।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে এতদিন সীমিত সংখ্যক দর্শকের উপস্থিতিতে হয়েছে ম্যাচ। এই নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় কাম্প নউয়ের গ্যালারিতে বসে ক্লাসিকো উপভোগের সুযোগ পাবেন ৯৯ হাজার সমর্থক। ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় শুরু হবে রোববার রাত সোয়া আটটায়।

মৌসুমের শুরুটা সাদামাটা হলেও একটু একটু করে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বার্সেলোনা। লা লিগায় সবশেষ ম্যাচে ভালেন্সিয়ার বিপক্ষে জয়ের পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও দিনামো কিয়েভের বিপক্ষে জিতেছে তারা। চেনা মাঠে রিয়ালকে হারাতে ভরা গ্যালারির সমর্থনও চাইলেন কুমান।

“আমরা টানা দুই ম্যাচ জিতেছি এবং দলের ভেতরের আবহ এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে রোববারের ম্যাচে দর্শকের সমর্থন আমাদের প্রয়োজন। আমাদের দরকার দর্শকে ঠাসা গ্যালারি এবং আমাদের উচিত সমর্থকদের গর্বিত করা।”

“রোববারের ম্যাচ নিয়ে আমরা দারুণ শিহরিত এবং খেলতে উন্মুখ হয়ে আছি। কাম্প নউয়ের আবহ ছেলেদের উপভোগ করতে বলেছি। এটা বাড়তি কোনো চাপ নয়। আমাদের মাঠে নামতে হবে এবং ভয়ডরহীন ফুটবল খেলতে হবে।”

দলের মহাতারকা লিওনেল মেসির চলে যাওয়া, অঁতোয়ান গ্রিজমানকে ধারে পাঠানো এবং এরপর মৌসুমে সাদামাটা শুরু-এসব বিষয় নিয়ে বার্সেলোনা সমালোচকদের তোপের মুখে ছিল। তবে শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে কুমানের কণ্ঠে ছিল আত্মবিশ্বাসের ছাপ। রিয়ালের সঙ্গে নিজেদের বর্তমান দলের বড় কোনো পার্থক্য নেই বলেও মনে করেন তিনি।

“আমরা ভীত নই। আমি মনে করি, দুটি দলই ভালো মানের তরুণ ও অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের মিশেলে গড়া। আমরা বল পজেশনে রিয়ালের চেয়ে ভালো এবং তারা প্রতি-আক্রমণে খুবই বিপদজনক।”

গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দিনামো কিয়েভের বিপক্ষে ম্যাচে গোলের একাধিক সুযোগ নষ্ট করেন আনসু ফাতি, ফিলিপে কৌতিনিয়োরা। চোট কাটিয়ে ফেরা সের্হিও আগুয়েরোও পাননি জালের দেখা। ডিফেন্ডার জেরার্দ পিকের একমাত্র গোলে স্বস্তির জয় পেয়েছিল বার্সেলোনা। তাই ক্লাসিকোয় সুযোগ নষ্টের ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়া যাবে না বলেও দলকে সতর্ক করে দিলেন কুমান।

“যখন আমরা পজেশন হারাব তখন তাদের গতি নিয়ে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে এবং গোলের সুযোগ পেলে আমাদের কার্যকরী হতে হবে। এ ধরনের ম্যাচে সুযোগ নষ্ট করা যাবে না।”