ধর্ষণ মামলায় সর্বোচ্চ আদালতেও রবিনিয়োর শাস্তি বহাল

ফাইল ছবি
দলবেঁধে আলবেনিয়ার এক নারীকে ধর্ষণের দায়ে পাওয়া ৯ বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে ইতালির সুপ্রিম কোর্টে আপিল করেও কোনো লাভ হয়নি রবিনিয়োর। ব্রাজিলের সাবেক ফরোয়ার্ডের আপিল খারিজ করে শাস্তি বহাল রেখেছে সর্বোচ্চ আদালত।

রবিনিয়োর আইনজীবী বুধবার খবরটি নিশ্চিত করেছেন। আদালতের এই রায়ের বিরুদ্ধে আর কোনো আপিল করার সুযোগ নেই রিয়াল মাদ্রিদ, এসি মিলান ও ম্যানচেস্টার সিটিতে খেলা এই ফুটবলারের।

২০১৩ সালে ইতালির সেরি আর দল এসি মিলানে খেলার সময় আরও পাঁচ জনের সঙ্গে রবিনিয়ো মিলানের একটি নাইটক্লাবে ২২ বছর বয়সী এক নারীকে যৌন নির্যাতন করেন। দোষী প্রমাণিত হওয়ায় ২০১৭ সালের নভেম্বরে ৯ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয় তাকে।

২০১০ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এসি মিলানের হয়ে খেলা রবিনিয়ো ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলে তা ২০২০ সালের ডিসেম্বরে খারিজ করে দেয় আদালত। সবশেষ এবার দেশটির সর্বোচ্চ আদালতও তার কারাদণ্ডের শাস্তি বহাল রাখল।

আগামী ২৫ জানুয়ারি ৩৮ বছর পূর্ণ করতে যাওয়া রবিনিয়ো বর্তমানে ব্রাজিলেই আছেন। দেশটি তার নাগরিককে অন্য কোনো দেশে বিচারের জন্য ফেরত পাঠায় না। তবে দেশেই শাস্তির মুখোমুখি হতে পারেন রবিনিয়ো। কারণ, ইতালিতে সংগঠিত অপরাধ যদি ব্রাজিলেও অপরাধ হিসেবে গণ্য হয় সেক্ষেত্রে শাস্তি ভোগ করতে হয়।

ব্রাজিলের হয়ে ১০০ ম্যাচ খেলে ২৮ গোল করা রবিনিয়ো ২০২০ সালের অক্টোবরে নিজ দেশের ক্লাব সান্তোসের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। কিন্তু ক্লাব সমর্থক ও পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানগুলোর চাপে চুক্তি স্থগিত করে সান্তোস।