নয় কোম্পানির মুনাফার তথ্য প্রকাশ

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্চ ভবন। ছবি: মোস্তাফিজুর রহমান
পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নয়টি কোম্পানি তাদের মুনাফার তথ্য প্রকাশ করেছে।

বুধবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ওয়েবসাইটে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার লিমিটেড

খাদ্য খাতে তালিকাভুক্ত ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ার অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি ১৩ টাকা ৫২ পয়সা মুনাফা দেখিয়েছে। আগের বছর এই সময় তাদের শেয়ারপ্রতি মুনাফা ছিল ১১ টাকা ৬৭ পয়সা।

অর্থবছরের নয় মাসে ইউনিলিভার কনজুমার কেয়ারের শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ৩২ টাকা ১০ পয়সা। আগের বছর এই নয় মাসে তা ৩৮ টাকা ৫ পয়সা ছিল।

নয় মাসের মুনাফা কমার কারণ হিসেবে এ কোম্পানি বলেছে, বাংলাদেশে সুদের হার কমে যাওয়ার কারণে ব্যাংকে জমা অর্থ থেকে তারা এবার কম আয় করতে পরেছে।    

ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো বাংলাদেশ

ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে শেয়ার প্রতি ৫ টাকা ৪৫ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর এ সময়ে ৫ টাকা ৩ পয়সা ছিল।

আর অর্থবছরের নয় মাসে ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকোর শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ২১ টাকা ৪১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ১৬ টাকা ১৫ পয়সা ছিল।

প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স

বীমা খাতের কোম্পানি প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি মুনাফা দেখিয়েছে ৪৯ পয়সা। আগের বছর এই সময় তাদের শেয়ার প্রতি মুনাফা ছিল ২ টাকা ৬৮ পয়সা।

আর নয় মাসে প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স শেয়ার প্রতি ৩ টাকা ৮ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর একই সময়ে ২ টাকা ৯৪ পয়সা ছিল।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

মার্কেন্টাইল ব্যাংক জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে শেয়ার প্রতি ১ টাকা ৩৬ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর এই সময়ে ৬৭ পয়সা ছিল।

আর অর্থবছরের নয় মাসে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ৩ টাকা ৩৮ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে তাদের শেয়ারপ্রতি মুনাফা ১ টাকা ৬৪ পয়সা ছিল।

ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ড

মিউচুয়াল ফান্ড ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ড তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি মুনাফা দেখিয়েছে ৩৪ পয়সা। এর আগের বছর এই সময় তাদের শেয়ারপ্রতি মুনাফা ছিল ১ টাকা ৬১ পয়সা।

নয় মাসে ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ড শেয়ার প্রতি মুনাফা দেখিয়েছে ১ টাকা ৫৯ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে যা ৯৯ পয়সা ছিল।

জনতা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড

বীমা খাতে তালিকাভুক্ত জনতা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি ২৬ পয়সা মুনাফা করেছে। আগের বছর এই সময়ে মুনাফা ছিল ৪১ পয়সা।

আর নয় মাসে জনতা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড শেয়ার প্রতি মুনাফা হয়েছে ১ টাকা ২৩ পয়সা, যা আগের বছর এ সময়ে ১ টাকা ১১ পয়সা ছিল।

আরএকে সিরামিকস বাংলাদেশ

আরএকে সিরামিকস বাংলাদেশ অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি ৪৬ পয়সা মুনাফা করেছে, যা আগের বছর একই সময়ে ২৯ পয়সা ছিল।

নয় মাসের হিসাবে আরএকে সিরামিকসের মুনাফা হয়েছে প্রতি শেয়ারে ১ টাকা ৪৭ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ২১ পয়সা মুনাফা করেছিল তারা।

এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেড

এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেড অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি ৩২ পয়সা মুনাফা দেখিয়েছে। আগের বছর একই সময় তাদের শেয়ারপ্রতি মুনাফা ৪২ পয়সা ছিল।

আর নয় মাসে এ কোম্পানির মুনাফা হয়েছে ১ টাকা ১৮ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ১ টাকা ৪০ পয়সা ছিল।

নিটোল ইন্সুরেন্স

বীমা খাতে তালিকাভুক্ত নিটোল ইন্সুরেন্স অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি ৬৮ পয়সা মুনাফা দেখিয়েছে। আগের বছর একই সময়ে তাদের মুনাফা ছিল ৫৫ পয়সা।

নয় মাসের হিসাবে নিটোল ইন্সুরেন্সের মুনাফা হয়েছে ২ টাকা ৫ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ২ টাকা ১০ পয়সা ছিল।