পিক্সেল ছাড়া অন্য অ্যান্ড্রয়েডেও আসছে গুগলের ‘লকড ফোল্ডার’

ছবি: গুগল
গুগল ফটোর লক করা ফোল্ডার ফিচার পিক্সেল ফোন ছাড়া অন্য অ্যান্ড্রয়েড ফোনেও আসতে শুরু করেছে। এই ফিচারটি ফোন মালিকের বাছাই করা ফটো বা ভিডিও’র জন্য আলাদা ফোল্ডার তৈরি করে যা অন্য কারো নাগালে থাকে না।

সেপ্টেম্বরেই গুগল জানিয়েছিল, ফিচারটি “শীগগীরই” আরও অ্যান্ড্রয়েড ফোনে আসবে। ‘অ্যান্ড্রয়েড সেন্ট্রাল’ সাইটটি জানাচ্ছে, বেশ কিছু স্যামসাং এবং ওয়ানপ্লাস ডিভাইসে এই ফিচারটির দেখা মিলছে। আর, প্রযুক্তি সাইট ভার্জ বলছে, তাদের পরীক্ষায় দেখা গেছে, পুরানো পিক্সেল ডিভাইস যেগুলোর এই ফিচারে এক্সেস ছিল না, তারাও এখন ফিচারটি পাচ্ছে।

এই ফিচারটি ফোন মালিককে নির্দিষ্ট ফটো বা ভিডিও বেছে নিয়ে পাসকোড বা বায়োমেট্রিক-লক করা ফোল্ডারে রাখতে দেয়। অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মূল ফটো ফিড থেকে বের করে এবং ক্লাউড থেকেও দূরে রাখে।

মে মাসে গুগলের আই/ও আয়োজনে ঘোষণার পরে জুন মাসে এটি গুগলের নিজস্ব ফিক্সেল ৩ ও এর পরের ফোনগুওলোতে চালু হয়।

গুগল এ ফিচারটির উপস্থাপনায় দেখিয়েছে, একটি শিশুর মা-বাবা নতুন কেনা কুকরছানার ছবি তাদের শিশু সন্তানের কাছ থেকে আড়াল করতে ফিচারটি ব্যবহার করছেন। ভার্জ বলছে, নিঃসন্দেহে এটি একটি সম্ভাব্য পরিস্থিতি হতে পারে। তবে, বেশিরভাগ ব্যবহারকারী সম্ভবত ভিন্ন কারণে ফিচারটি ব্যবহার করবেন। তাদের চিন্তুা থাকবে, পরিচিত কেউ, সন্তান বা বন্ধু, ফোনের ফটো অ্যালবামের ছবি সোয়াইপ করতে গিয়ে যেন “অস্বস্তিকর” কোনো ছবি দেখে না ফেলে।

অ্যান্ড্রয়েড ৬ বা এর পরের সংস্করণগুলোয় এই ফিচারটি চলে আসার কথা। অ্যান্ড্রয়েড ১১ চালিত পিক্সেল ২ ফোনে এটি ফটোজ > লাইব্রেরি > ইউটিলিটিজ অংশে গিয়ে এই ফিচারটি পাওয়া গেছে।

যারা এরইমধ্যে ফিচারটি পেয়েছেন তাদের জন্য দুটি বিষয় মনে করিয়ে দিয়েছে ভার্জ। প্রথমত, লকড ফোল্ডারে রাখা ফটো বা ভিডিও ক্লাউডে ব্যাক আপ হবে না এবং আপনি যদি গুগল ফটোজ আনইনস্টল করেন বা সেগুলি কোথাও সরানোর আগেই ফোনটি ইরেজ করেন বা মুছে ফেলেন তাহলে এতে রাখা সব ফাইলই মুছে যাবে।