‘বৃহত্তম’ চিপ কারখানা ওহাইয়োতে বানাবে ইনটেল

ছবি: ইনটেল
ওহাইওতে বিশ্বের সম্ভাব্য বৃহত্তম চিপ উৎপাদন কমপ্লেক্স নির্মাণের জন্য ১০০ বিলিয়ন ডলার পর্যন্ত বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে ইনটেল। স্মার্টফোন থেকে গাড়ি পর্যন্ত সবকিছুতে নাভিশ্বাস তোলা বিশ্বব্যাপী সেমিকন্ডাক্টর ঘাটতির মধ্যে উৎপাদন কেন্দ্রের এই ঘোষণা দিল মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

চিপ তৈরিতে ইনটেলের আধিপত্য পুনরুদ্ধার এবং এশিয়ান উৎপাদন কেন্দ্রগুলির উপর মার্কিন নির্ভরতা হ্রাস করার জন্য প্রধান নির্বাহী প্যাট গেলসিঙ্গারের কৌশলের অংশ এই পদক্ষেপ। মাইক্রোচিপ উৎপাদনে এখন এশিয়ান প্রতিষ্ঠানগুলো নেতৃত্ব দিচ্ছে।

গেলসিঙ্গার বলেন, নিউ আলবানির এক হাজার একর জমির ওপর প্রাথমিকভাবে ২০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ হতে যাচ্ছে ওহাইওর ইতিহাসে বৃহত্তম। এতে তিন হাজার কর্মসংস্থান তৈরি হবে।

“এটি বেড়ে মোট আটটি ফ্যাব্রিকেশন প্ল্যান্টে দাঁড়াতে পারে এবং বিনিয়োগ একশ’ বিলিয়ন ডলারে পৌঁছাতে পারে যা হবে ওহাইওতে রেকর্ডের বৃহত্তম বিনিয়োগ।”

মন্তব্যে ‘সিলিকন হার্টল্যান্ড’ নামে এই প্রকল্প “বিশ্বের বৃহত্তম সেমিকন্ডাক্টর উৎপাদন কেন্দ্র” হয়ে উঠতে পারে” বলে উল্লেখ করেছেন গেলসিঙ্গার।

বিশ্বব্যাপী চিপ কারখানাগুলো উৎপাদন বাড়ানোর জন্য যখন ঝাঁপিয়ে পড়েছে, তখন নতুন এই কারখানা নিয়ে ইনটেলের উদ্যোগ আপাত কোনো সমাধান দেবে না বলে উঠে এসেছে রয়টার্সের প্রতিবেদনে। এই ধরনের কমপ্লেক্স তৈরি করতে কয়েক বছর সময় লাগে।

গেলসিঙ্গার শুক্রবার ফের উল্লেখ করেন, চিপের ঘাটতি সম্ভবত ২০২৩ সালেও গড়াবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে চিপ উৎপাদন দ্রুততম সময়ে বাড়ানোর জন্য বাইডেন প্রশাসন মার্কিন কংগ্রেসে ৫২ বিলিয়ন ডলারের ভর্তুকি তহবিলে অনুমোদন চাইছে।

বাইডেন বলেন, “চীন বিশ্ব বাজার দখলের জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছে যাতে তারা আমাদের বাকিদের পেছনে ফেলতে পারে।”