বাণিজ্যবান্ধব ক্লাউডভিত্তিক টুল আনছে হোয়াটসঅ্যাপ

নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে থাকা বাণিজ্যিক অ্যাকাউন্টের কার্যক্রম বাড়াতে নতুন ক্লাউডভিত্তিক ‘এপিআই’ আনছে হোয়াটসঅ্যাপ। নতুন এই সেবাটির নাম ‘হোয়াটসঅ্যাপ ক্লাউড এপিআই’।

ব্যবসাভিত্তিক গ্রাহক সংখ্যা ব্যাপক হারে বাড়ছে মেটা মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটিতে।

‘কনভার্সেশনস’ নামের মেসেজিং সংক্রান্ত এক আয়োজনে মেটা সিইও মার্ক জাকারবার্গ নতুন এপিআই সম্পর্কে বলেছেন বৃহস্পতিবার।

মেসেজিং সেবায় বাণিজ্যিক ব্যবহারকারী বাড়তে থাকায়, হোয়াটসঅ্যাপ সহ অন্যান্য প্ল্যাটফর্মে শপিং ও ব্যবসা-কেন্দ্রিক ফিচার এনেছে মেটা।

“মেটা সমর্থিত ‘হোয়াটসঅ্যাপ ক্লাউড এপিআই’ ব্যবহার করে যে কোনো ব্যবসায়ী বা নির্মাতা সহজেই আমাদের সেবায় প্রবেশ, হোয়াটসঅ্যাপে সরাসরি তাদের অভিজ্ঞতা কাস্টমাইজ এবং গ্রাহকের সঙ্গে যোগাযোগের গতি বাড়াতে পারবেন।” – আয়োজনে বলেছেন জাকারবার্গ।

হোয়াটসঅ্যাপের চলতি ‘এপিআই’ প্লাটফর্মের ব্যবসাকে নিজস্ব সিস্টেমে যুক্ত করে এবং সেবায় ‘কাস্টমার সার্ভিস চ্যাট’ সুবিধা আনতে সহায়তা করে, যা মেটার আয়ের মাধ্যম হিসেবে কাজ করে।

২০১৪ সালে এক হাজার নয়শ কোটি ডলারে হোয়াটসঅ্যাপ কেনা মেটা জানিয়েছে, হোয়াটসঅ্যাপে কেবল যদি অনুরোধ সাপেক্ষে যোগাযোগের সুবিধা থাকতো, তাহলে ব্যবহারকারীকে সরাসরি বার্তা পাঠাতে পারতো না ব্যবসাগুলো।

ব্যবহারকারীর জন্য নতুন প্রিমিয়াম সেবার অংশ হিসেবে ‘পেইড ফিচার’ আনার পরিকল্পনার কথাও বৃহস্পতিবার জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। অ্যাপে থাকা ক্ষুদ্র ব্যবসাগুলোর কথা চিন্তা করে এই পরিকল্পনা হচ্ছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে রয়টার্স।

এখনও নির্মানাধীণ অবস্থায় থাকা এসব ফিচারে সর্বোচ্চ ১০টি ডিভাইস পর্যন্ত চ্যাট পরিচালনার ও কাস্টমাইজ করা ‘ক্লিক-টু-চ্যাট’ লিঙ্ক সুবিধা থাকবে, যেটি ব্যবসাগুলো তাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট ও গ্রাহকের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবে।

উবার সিইও দারা খসরোশাহি আয়োজনটির এক সেশনে মেটা সিইও শেরিল স্যান্ডবার্গের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে জানান, ভারতে তাদের নতুন গ্রাহকদের এক তৃতীয়াংশই হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে রাইড সেবাটি ব্যবহার করছেন।

রাইড শেয়ারিং সেবাটি হোয়াটসঅ্যাপের ‘চ্যাটবট’ সুবিধা এনেছে গেল ডিসেম্বর। পাশাপাশি, নিজেদের সেবাকে আগামীতে আরও বেশি কাস্টমাইজ করে দিল্লির আশপাশ এবং ব্রাজিলের মতো দেশ পর্যন্ত বিস্তৃত করার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন খসরোশাহি।