ভিয়েতনামে তুমুল বৃষ্টিতে বন্যা, ভূমিধসে নিখোঁজ ১৮

ভিয়েতনামের মধ্যাঞ্চলে ভারি বৃষ্টিতে দেখা দেওয়া বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ১৮ জন নিখোঁজ হয়েছেন, এদের মধ্যে কয়েকজন মারা গেছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

প্রাকৃতিক এসব দুর্যোগে ঘরবাড়ি ধ্বংস এবং রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে দেশটির সরকার জানায়, বৃষ্টি কমে গেছে এবং নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা শুরু হয়েছে। কিছু জাতীয় মহাসড়ক, আন্তঃপ্রাদেশিক ও আঞ্চলিক সড়ক আংশিকভাবে বন্ধ হয়ে আছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, নিউজ ওয়েবসাইট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা ছবিগুলোতে কাদা মিশ্রিত, দ্রুতবেগে ধাবমান বাদামি পানির স্রোত দেখা গেছে। বন্যার পানিতে ডুবে থাকা রাস্তাগুলো দিয়ে লোকজন নৌকায় চড়ে, অনেকে কোমড় সমান পানি ভেঙে এগিয়ে যাচ্ছে, কেউ কেউ বন্ধ হয়ে যাওয়া মোটরসাইকেল ঠেলাঠেলি করছে।

সৈকত শহর ফু ইয়েন, বিন ডিং ও ভিয়েতনামের প্রধান কফি উৎপন্নকারী প্রদেশ ডাক লাক সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

বন্যায় সাত দশমিক আট বর্গকিলোমিটার এলাকার ধানের ক্ষেত ডুবে গেছে, তবে কফি খামারগুলো থেকে ক্ষয়ক্ষতির কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

দীর্ঘ সমুদ্র উপকূল থাকার কারণে ভিয়েতনামে প্রায়ই ঝড় ও বন্যা হয়। গত বছরে দেশটিতে প্রাকৃতিক দুর্যোগে ৩৭৮ জন মারা গেছেন। এদের বেশিরভাগই বন্যা ও ভূমিধসের শিকার হয়েছেন।

চলতি বছরের শেষ দিকে উপকূলীয় ও উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশগুলোসহ ভিয়েতনামের বন্যাপ্রবণ এলাকাগুলোতে ভারি বৃষ্টি ও বন্যার সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে দেশটির জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্র।