বরগুনায় ঘর থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

বরগুনার পাথরঘাটায় নিজ ঘর থেকে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছ পুলিশ।

শুক্রবার ভোরে পাথরঘাটা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে লাশটি তারা উদ্ধার করেন বলে পাথরঘাটা থানার ওসি আবুল বাশার জানান। 

নিহত জেসমিন সুলতানা (২৮) ওই ওয়ার্ডের সুলতান খানের মেয়ে এবং বরগুনা সদর উপজেলার নলটোনা ইউনিয়নের গর্জনবুনিয়া এলাকার আবুল বাশার খানের স্ত্রী।

নিহতের মা রেনু বেগম বলেন, বিয়ের পর থেকেই তার মেয়েকে আবুল বাশার (৩২) নির্যাতন করত। নির্যাতন থেকে রক্ষা পেতে জেসমিনের বাবার দেওয়া জমিতে ঘর তুলে দেওয়া হয়। সেখানেই মেয়ে ও জামাই থাকত।

“বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে বাশার আমার ছেলের মোবাইলে ফোন করে জেসমিন গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানায়। তাৎক্ষণিকভাবে আমরা জেনমিনের বাসায় গিয়ে ঘরের ভেতর বিছানার ওপর তার লাশ পড়ে থাকতে দেখি।”

এরপর থেকে বাশার ও তার বোন জামাই মোস্তফাকে পাওয়া যায়নি বলে জানান রেনু।

জেসমিনের ভাই রফিকুলের দাবি, জেসমিনকে তার স্বামীই শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়েছে।

লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে ওসি আবুল বাশার জানান।